ডেস্ক রিপোর্টঃ একবার চিন্তা করুনতো অাপনার পরিবারের কেউ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পরও বকেয়া পরিশোধ করতে না পারায় মায়ের কাছে ফিরতে পারছেনা।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান। সাইনোভিয়াল সারকোমা নামক ক্যান্সার নিয়েই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছেন ছয় মাস আগে। অর্থের অভাবে চিকিৎসা নিতে পারেননি, তাই গোপন রেখেছিলেন নিজের ভয়ংকর ব্যাধির কথা। সহপাঠীরা জানলে তাদের উদ্যোগে শুরু হয় মেহেদীর চিকিৎসা।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর মুম্বাইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে অপারেশন হয় মেহেদীর। কিন্তু হাসপাতালের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় পরিবারের একমাত্র অবলম্বন মা ফিরিয়ে অানতে পারছেন না সন্তানকে। হাসপাতালের বকেয়া, অস্ত্রোপচার পরবর্তী থেরাপি এবং ওষুধপত্র বাবদ আরও প্রয়োজন সাত থেকে আট লাখ টাকা। এত পরিমাণ অর্থ তার পরিবার কিংবা সহপাঠীদের জন্য যোগাড় করা প্রায় দুঃসাধ্য।

নিজ নিজ অবস্থান থেকে অাপনার একটু সহযোগিতাই ফিরিয়ে অানতে পারে একটি প্রাণোচ্ছল তরুণ প্রাণ।
সাহায্য পাঠানোর ঠিকানাঃ
ইয়াসির আরাফাত
ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড-
হিসাব নং-২৭৩১০৫০৯০৩,
ময়নামতি ব্রাঞ্চ, ক্যান্টনমেন্ট, কুমিল্লা।
বিকাশ-০১৭৬৫-৫৬৬৬১৬
রকেট- ০১৭৬৫-৫৬৬৬১৬২