ঢাকা থেকে কুমিল্লা বিশ্বরোড পর্যন্ত অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের জন্য বাসের নতুন রুট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)।

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ডাকসুর নির্বাহী সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডাকসু’র জিএস গোলাম রাব্বানী।

তিনি আরও বলেন, ‘ডাকসু প্রতিনিধিদের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং দীর্ঘ দিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ফেব্রুয়ারি মাসেই নতুন তিনটি বাস পাচ্ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। দুটি বাস বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব অর্থায়নে, আর একটি সাধারণ বিমা করপোরেশনের সৌজন্যে।’

ঢাকা-কুমিল্লা বিশ্বরোড রুটে বাসের দাবি উত্থাপন করেছেন ডাকসুর সাহিত্য সম্পাদক মাজহারুল কবির শয়ন। তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নরসিংদী ও গাজীপুর রুট পর্যন্ত যেতে আড়াই থেকে তিন ঘণ্টা সময় লাগে। কিন্তু সুপ্রশস্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম চার লেন রাস্তা এবং ৬ লেন বিশিষ্ট মেঘনা-গোমতী সেতুর কারণে কুমিল্লা বিশ্বরোড পর্যন্ত যেতে মাত্র দেড় থেকে ২ ঘণ্টা সময় লাগে। এই রুট চালু হলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত কুমিল্লা, চাঁদপুর, ফেনী, নোয়াখালীর হাজারও শিক্ষার্থীদের দারুণ উপকার হবে।’

জানা যায়, গণরুম শিক্ষার্থীদের জন্য পাঁচটি হলে প্রাথমিকভাবে পাঁচটি করে ব্যাঙ্ক বেড দেওয়ার ব্যবস্থা, মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন, পুরনোগুলোকে সংস্কার, উন্নয়ন ফি কমানো, দেশের যেকোনো জায়গা থেকে অনলাইনে পেমেন্ট, প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ডাকসুর নবীনবরণ আয়োজন, ক্যাম্পাসে পলিথিন নিষিদ্ধকরণ, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রণয়ন করে সহযোগিতা, ইজিবাইক চালু করা, ভ্রাম্যমাণ দোকান উচ্ছেদসহ আরও নানা ধরনের ইস্যু নিয়ে ডাকসু’র সভায় আলোচনা হয়েছে।