গৌরীপুর বাজার-হোমনা সড়ক যেন মৃত্যুর কূপ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা বাণিজ্যিক প্রাণকেন্দ্র নামে পরিচিত গৌরীপুর বাজার – হোমনা, পেন্নাই মোড়, গৌরীপুর বাজার সড়কের জলাবদ্ধতার ও সড়ক সংস্কার ও নিরসনের সংশ্লিষ্টদের নেই কোন উদ্যোগ।

সাধারণ মানুষের ভোগান্তির যেন শেষ নেই, অসুস্হ রোগী, প্রসুতিসহ সাধারণ মানুষ কতটা অসহায় এ পথে চলাচল করতে গেলেই বুজা যায়। সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের কথা কখনো ভাষায় বুঝানো সম্ভব নয়। ঝড় বৃস্টিতে এ পথে জলাবদ্ধতা যেন সাধারণ মানুষের কস্টের একমাত্র কারণ। এই জনদুর্ভোগ যেন দেখারকেউ নেই। এই জলাবদ্ধতার মাঝেই সিএনজি, গাড়ী, রিক্সা বিকলে যুগ হয়েছে নিত্যদিনের যানজট।

দাউদকান্দি,মেঘনা উপজেলার পুর্বাংশ,তিতাস,হোমনা ও বি-বাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার অধিকাংশ জনগনের যাতায়ত এই সড়কটি দিয়ে। এত জনগুর গুরুত্বপূণর্ সড়কটি কেন যে সংস্কার হচ্ছে না সাধারণ জনগণের প্রশ্ন।

৭ এপ্রিল ১৯ ইং রবিবার সকালে গৌরীপুর-হোমনা সড়কের পেন্নাই বাসষ্ট্যান্ড থেকে গৌরীপুর বাজার পর্যন্ত সড়ক সংস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেন সিএনজি অটোরিক্সা ও বাস চালকরা। অটো রিস্কা ও বাস চালকদের সাথে সড়ক সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে যোগদেন গৌরীপুরের বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র ছাত্রী বৃন্দ, তারা বিভিন্ন স্লোগানে উত্তপ্ত করে তোলে এলাকা, খবর পেয়ে দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহবুব আলম ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে। তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের আশ্বস্ত করে বলেন, আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে এই সড়কের সংস্কার কাজ আরম্ভ হবে, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের আশ্বাসে ছাত্র ছাত্রীরা ও অটোরিকশা চালকরা আন্দোলন তুলে নেন।

একজন সিএনজির ড্রাইভার জানান, এই সড়ক দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ কয়টি জেলা থানার লক্ষ লক্ষ মানুষ, কয়েক হাজার যানবাহন চলাচল করে এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি সংস্কার না হওয়ায় সাধারন জনগন চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তাই উপজেলা নির্বাহি অফিসার মহোদয় এর আশ্বাস বাস্তবায়নে দ্রুত সড়কটি সংস্কার দাবি জানান এ ভুক্তভোগী।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ