কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মোসা. হাসিনা বেগম (৪০) নামে একজন নিহত হয়েছে। তিনি কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার নাগেরকান্দি গ্রামের বাসিন্দা। এঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে আরো ১৮ জন।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) দুপুর বারটার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বাতিসা গোলমানিক্য দীঘিরপাড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করেছেন মিয়া বাজার হাইওয়ে ফাঁড়ি থানার এসআই মো. জয়নাল আবেদীন। জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম থেকে কুমিল্লাগামী তিশা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে হাসিনা বেগম নামে এক মহিলা নিহত হয়। এঘটনায় আরো ১৮ জন আহত হয়।

খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের একটি দল ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে দ্রুত পৌছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে এবং আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এবিষয়ে মিয়াবাজার হাইওয়ে ফাঁড়ি থানার এসআই মো. জয়নাল আবেদীন জানান, “দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে। দুর্ঘটনাস্থল থেকে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। আহতদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গুরুতর আহত চারজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকীদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে উচ্চগতির ফলে দুর্ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে”।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: