কুমিল্লার তিতাস উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের ব্যক্তিগত অর্থায়নে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় ও নিম্ন আয়ের ৫ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলা মিলনায়তনে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর প্রধান অতিথি হিসেবে উক্ত খাদ্য সামগ্রী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাতে তুলে দেন।

উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা যায়, করোনা ভাইরাস রোধে সকল কাজকর্ম বন্ধ থাকায় দিনমজুর, শ্রমিক, অটো রিক্সা, সিএনজি, ভ্যান ও রিক্সা চালকদের মাঝে জনপ্রতি ৫ কেজি চাউল, ২ কেজি আটা, ২ কেজি আলু, ১ লিটার তৈল, ১ কেজি লবন, ১ কেজি ডাল ও ১ কেজি পেয়াজ বরাদ্দ দেওয়া হয়। উপজেলা পরিষদের আওতাধীন সকল ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের ব্যক্তিগত তহবিল এবং উপজেলা প্রশাসনে কর্মরত সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতনের একটি অংশের আর্থিক সহযোগিতায় এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

কুমিল্লা-২ (হোমনা-তিতাস) সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ মেরীর পরামর্শ ও দিক নির্দেশনায় খাদ্য সহায়তা প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা. রাশেদা আক্তার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুবাইয়া খানম, তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সরফরাজ হোসেন খান, কুমিল্লা (উত্তর) জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক মো. রওশন আলী মাস্টার, তিতাস থানার ওসি সৈয়দ আহসানুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. শওকত আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. মহসীন ভূঁইয়াসহ প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: