করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া ১০০ জন মানুষের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করলেন কুমিল্লা তিতাস উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের বাহরাইন প্রবাসী নুর মোহাম্মদ। মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) দুপুর ১২ টায় উপজেলার কলাকান্দি ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে মাছিমপুর গ্রামের আঃ বাতেন এর বাড়িতে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

মহামারী করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে দু’বেলা খাবার তুলে দিতেই এই আয়োজন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই সকল খাদ্য সামগ্রী সকলের হাতে তুলে দেন ৫ নং কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি হাবিবুল্লাহ বাহার।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাছিমপুর আর আর ইনস্টিটিউশন এর সাবেক শিক্ষক ও সমাজ সেবক মোঃ কবির আহমেদ মাষ্টার, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ জয়নাল আবেদীন, কলাকান্দি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন বাবুল, মাহবুব আলম, জাকির হোসেন, ১ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ফারুক মাহমুদ, আশরাফ উদ্দিন, আবুল কালামসহ আরও অনেকে।

বাহরাইন যুবলীগের সদস্য নুর মোহাম্মদ এর অর্থায়নে ১০০ পরিবারের প্রতিটি প্যাকেটে ছিল ৭ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবণ, দেড় কেজি আলু ও ১ কেজি পেয়াজ।

এদিকে নুর মোহাম্মদ বলেন, করোনার আঘাতে সারা বিশ্বই এখন লন্ডভন্ড ও লকডাউনে আটকা। মানুষের অভাব অনটন বেড়েই চলছে। সেই মুহুর্তে সামান্য সহযোগিতাই অনেক বেশি মনে হবে। ঠিক সেই উপলব্ধি মনে রেখে কুমিল্লা ২ (হোমনা- তিতাস) আসনের এমপি সেলিমা আহমাদ মেরী’র নির্দেশে ও তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ পারভেজ হোসেন সরকারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে আমি কিছু পরিবারের মাঝে খাবার সামগ্রী দিতে পেরে আনন্দিত। তিনি টেলিফোনে আরও জানান, আমার এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তবে আমার চেয়ে আমার মা বেশি খুশি হয়েছেন এতেই আমি ধন্য।