মো. ওমর ফারুকঃ কুমিল্লার নাঙ্গরকোটের জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়ন নবগঠিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আলী আজগরের মা ক্রোকারিজ এন্ড ফার্নিচার দোকানে তালা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিয়াজীর বিরুদ্ধে। গত রোববার রাতে উপজেলার ওই ইউপির শংকরপুর তালতলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শংকরপুর গ্রামের মৃত. মাস্টার আলী আকবর মিয়াজির ছেলে আলী আজগর মিয়াজি জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির পদ পাওয়ার পর থেকে ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিয়াজী ওই পদ থেকে সড়ে দাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ভাবে হুমিক ধমকি দিয়ে আসছেন তাকে। পদ না ছাড়ায় রোববার রাতে ওই চেয়ারম্যান নেতৃত্বে ২০-২৫ জন লোক নিয়ে আজগরের বাড়ীতে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালামন্দ করে। পরে তাকে বাড়ীতে না পেয়ে তার দোকানে তালা দিয়ে সিলগালা করেন। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আলী আজগর মিয়াজি বলেন, আমার কাছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ ও ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন চেয়ারম্যান। টাকা না পেয়ে ঘটনার দিন রাত ১২ টার দিকে জোড্ডা পূর্ব ইউপির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিয়াজি আমার দোকানে তালা দেয়। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই।

অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিয়াজী দোকানে তালা দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ওই ক্রোকারিজ দোকানটিতে বহিরাগত লোক নিয়ে আজগর আামকে মারার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা ঘটনার দিন সন্ধ্যায় হট্টঘল করার উদ্দেশ্যে ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে বিভিন্ন কমিটি নিয়ে আমার সাথে খারাপ আচরণ করে। তাই আমি তার দোকান তালা দিয়ে সিলগালা করি।