মো: ওমর ফারুকঃ কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে দিনব্যাপি ঐতিহ্যবাহি ঠান্ডকালী বাড়ী মেলায় দোকানিদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে কমিটির বিরুদ্ধে। গতকাল বুধবার উপজেলার ঢালুয়া ইউনিয়নের মোগরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ মেলা অনুষ্ঠিত হয়। নিয়ম অনুযায়ী প্রতিবছরের বাংলা মাসের পহেলা মাঘ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা তোয়াক্কা না করে ৩ দিন আগে মেলাটি শুরু হয়। মেলায় জুয়ার সামগ্রীসহ কয়েকজনকে আটক করে থানা পুলিশ। আটককৃতদের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সাজেদুল ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাদের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করেন।

সরেজমিনে মেলায় গিয়ে দেখা যায়, মেলাটি শত বছরের পুরনো প্রতি বছর বাংলা সালের পহেলা মাঘ মেলাটি বসে। মেলায় বসেছে জাদু, ছরকি, ট্রেন,ম্যাজিক হোন্ডা প্রদর্শনীসহ বসেছে হরেক রকমের পরসা। শিশুদের খেলনা, কসমেটিক, কাপড়ের দোকান,কৃষি সামগ্রী,কামারদের হাতে তৈরি লোহার বিভিন্ন সামগ্রীসহ রকমারি খাবার,চটপটি, পুসকা, চরকি খেলা, দেশীয় ও সামুদ্রীক বিভিন্ন প্রজাতির বড় বড় মাছের দোকান বসেছে। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার দর্শনার্থী মেলাটি উপভোগ করেন।

জানা যায়, এ বছর দেলোয়ার হোসেন নামের এক যুবক মেলাটি ইজারা নেয়। মেলায় প্রায় ৫-৬ হাজার দোকান বসছে। মেলায় আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রনে মেলা এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

এ বিষয়ে জিলাপি দোকানি সফিক, মাছ বিক্রেতা মহিন , খেলনা বিক্রেতা ফয়সালসহ আরো অনেক দোকানী অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ করে বলেন, এবার বিভিন্ন দোকানির কাছ থেকে ১২ থেকে ১৪ হাজার টাকা আদায় করেন মেলা কমিটির লোকজন। অতিরিক্ত ইজারার কারনে এ বছর মালামালের দাম অনেক বেশী।

এ বিষয়ে ইজারাদার দেলোয়ার হোসেনের মুঠো ফোনে কল দিয়েও তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।