ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার সড়ক-মহাসড়কগুলোতে অবৈধভাবে দাপিয়ে চলছে লেগুনা। অপ্রাপ্ত বয়স্ক এবং লাইসেন্স বিহীন, অদক্ষ এসব চালকের কারণে বাড়ছে যাত্রীদের জীবনের ঝুঁকি।

প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে কুমিল্লায় সড়ক-মহাসড়কগুলোতে এমন কার্যক্রম চলছে। ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট, কোম্পানীগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বসানো হয়েছে লেগুনার বড় ধরনের স্ট্যান্ড। এর জন্য যানবাহনের স্বল্পতার পাশাপাশি চাঁদাবাজ সিন্ডিকেটদের দায়ী করছেন স্থানীয়রা।

প্রশাসনের নির্দেশনার পর কিছুদিন আগে হাইওয়ে পুলিশ মিয়ার বাজার, ময়নামতি ও ইলিয়টগঞ্জ, দাউদকান্দি থেকে শত শত লেগুনা আটকের পর ডাম্পিং করেছিল। কিন্তু কিছুদিন বন্ধ থাকার পর সম্প্রতি প্রভাবশালীদের ছত্র-ছায়ায় নিষিদ্ধ এ যানবাহনটি ফের নামানো হয়েছে সড়ক-মহাসড়কে।

সম্প্রতি সড়ক-মহাসড়কে নিষিদ্ধ লেগুনা বন্ধ করতে এবং এসব যানবাহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রশাসন কঠোর নির্দেশনা দিলেও তার বাস্তবায়ন হচ্ছে না। বরং কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ক্যান্টনমেন্ট, কংশনগর, দেবিদ্বার এবং কোম্পানীগঞ্জ এলাকায় বড় ধরনের লেগুনার স্ট্যান্ড স্থাপন করেছে এক শ্রেণির চাঁদাবাজ চক্র।

রহস্যজনক কারণে এসব যানবাহন চলাচল বন্ধও করছে না পুলিশ।

স্থানীয়দের মতে, দ্রুত সড়ক-মহাসড়ক গুলোতে লেগুনা চলাচল বন্ধ করলে সড়ক দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমে আসবে।