ডেস্ক রিপোর্টঃ মুক্তিযুদ্ধে ২নং সেক্টর গঠন পূর্ব প্রক্রিয়ার অন্যতম নেতা মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল আহমেদ (ক্যাপ্টেন রেজা) এর স্বরণ সভা কুমিল্লা টাউন হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুমিল্লা-৬ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেন। মহান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ আমাদের জীবনের একটি অংশ। পাকিস্তানের ২৩ বছরের ইতিহাসে আমরা একজন কেবিনেট সেক্রেটারী, সেনা প্রধান, পুলিশ প্রধান, প্রধান বিচারপতি তৈরী করতে পারি নাই, কোন গুরুত্বপূর্ণ দােিত্ব বাঙালীদের দেয়া হতো না।এমপি বাহার বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখতেন আমাদের দেশের কেউ প্রধান বিচারপতি হবে, সেনা প্রধান হবে সেই স্বপ্নকে নিয়ে দেশ স্বাধীন করার জন্য সু-সংগঠিত করে বঙ্গবন্ধুর ডাকে সারা দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছি। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, প্রকৃত মু্ক্িতযোদ্ধার তালিকায় কিছু ভুয়া মু্ক্িতযোদ্ধা হয়েছে। তাদের সন্তাানরা মুক্তিযোদ্ধার সনদ ব্যবহার করে সরকারি চাকুরী করে জামায়াত শিবিরের আদর্শ লালন করে। কুমিল্লা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লা টাউন হলে এ স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির ছিলেন স্মরণ সভায় কুমিল্লা মুক্তিযোদ্ধা সংসদেও প্রশাসক কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোঃ আবুল ফজল মীর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক চেয়ারম্যান মেজর জেলারেল অবঃ হেলার মোর্শেদ খাঁন বীর বীক্রম, ৯ম পদাতিক ডিবিশনের সাবেক জিওসি মেজর জেলারেল অবঃ ইমাম উজ জামান বীর বীক্রম, মেজর জেলারেল অবঃ মিজানুর রহমান, পি এস সি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলর সাবেক মহাসচিব মেজর জেলারেল অবঃ মুনিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলর(প্রশাসক) আব্দুল মতিন, সাবেক মহাসচিব কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ সাবেক ভিপি নাজমুল হাসান পাখী, সদ্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন। অনুষ্ঠান স ালনা করেন কমান্ডার সফিউল আহমেদ বাবুল। স্মরণ সভায় কুমিল্লা ও বিভিন্ন উপজেলা থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ অংশগ্রহণ করেন। এসময় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কুমিল্লা মহানগরের সদস্য সচিব মো. আনোয়ার হোসাইন, জেলা কমিটির সভাপতি মাসুম হামিদসহ বিপুল সখ্যংক বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানরা উপস্থিত ছিলেন।