মো. জাকির হোসেনঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার কালিকাপুর বাজারে শনিবার দিবাগত রাত ১২ .৫০ মিনিটে আজিজুল ইসলামের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মুদি দোকানে প্রথমে বিদ্যুতের শর্ট সাকির্টের মাধ্যমে অগ্নি কান্ডের সূত্র পাত ঘটে। মূহূতের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা বাজারে ৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে বুড়িচং থেকে নব স্থাপিত ফায়ার স্টেশনের একটি ইউনিট কুমিল্লা থেকে একটি সহ ২টি ইউনিট,থানা পুলিশ, স্থানীয় ইউপি সদস্য লোকজন দেড় ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায় উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের ঐতিহ্য বাহী কালিকাপুর বাজারে শনিবার দিবাগত রাত ১২ .৫০ মিনিটে আজিজুল ইসলামের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মুদি দোকানে প্রথমে বিদ্যুতের শর্ট সাকির্টের মাধ্যমে অগ্নি কান্ডের সূত্র পাত ঘটে। এসময় আগুনের শিখা পাশ^ বর্তী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গিয়াস উদ্দিনের ওর্য়াক শপ, জসিম উদ্দিনের সেনিটারী দোকান, আবু তাহের ও ফুল মিয়ার দোকান সহ আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ব্যবসায়ী আজিজুল ইসলামের পাইকারী মুদি দোকানে নগদ আড়াই লক্ষ টাকা,বিভিন্ন মালামাল সহ প্রায় ২৭লক্ষ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়। পরে গিয়াস উদ্দিনের ওর্য়াক শপ দোকানে নগদ ৪২ হাজার টাকা মালামাল ৬ লক্ষ টাকা,জসিম উদ্দিনের সিনেটারী দোকানে ৫ লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন এবং ব্যবসায়ারা দাবী করছেন ক্ষয়ক্ষতির পরিমান প্রায় ৪২ লক্ষাধীক টাকা। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে বুড়িচং ফায়ার ষ্টেশন এবং কুমিল্লা থেকে সহ ২টি ইউনিট,বুড়িচং থানার ওসি,ইউপি সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: লিটন রেজা,স্থানীয় লোকজন দেড় ঘন্ট চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

এব্যপারে বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরুল হাসান বলেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদেরকে সরকারী ত্রান তহবিল থেকে দ্রুত সাহায্য সহযোগিতা করা হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: