কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমুল গ্রামের মোক্তল হোসাইন মেমোরিয়াল একাডেমির নাসারী শ্রেণির সাদিয়া আক্তার (৭) নামের এক ছাত্রী মঙ্গলবার বিকালে খেলা করতে গিয়ে বাড়ির সবার অজান্তে পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। স্কুল ছাত্রীর লাশ পানিতে ভাসতে দেখে উদ্ধার করে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত্যু ঘোষণা করে।

স্হানীয় সূত্র জানায় জেলার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমুল ইউনিয়নের বাকশীমুল মোক্তল হোসাইন মেমোরিয়াল একাডেমির নাসারী শ্রেণির ছাত্রী সাদিয়া আক্তার (৭) মঙ্গলবার বিকালে বাড়ির লোকের সবার অজান্তে খেলা করতে গিয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে যায়।

এক সময় স্কুল ছাত্রীর পিতা বাকশীমুল পূর্বপাড়া গ্রামের মাইন উদ্দিন ওই পুকুর পাড়ে নিজেদের জন্য গাছের লাড়কী কাটছিলেন তখন তিনি দেখেন তার মেয়ে পুকুরের পানিতে ভাসছে। সাথে সাথে মাইন উদ্দিন পুকুর থেকে ভাসমান শিশুটিকে উদ্ধার করে দ্রুত বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগ নিয়ে আসে। জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার শিশুটিকে মৃত ঘোষনা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিশুটির নিকট আত্মীয় একই বাড়ির মাওলানা মোঃ মফিজুল ইসলাম। পরে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭ টায় জানাজা পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: