ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার আজ্ঞা পুর গ্রামে অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রী কে বুধবার রাতে স্হানীয় বখাটে কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়। এঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে বুড়িচং থানায় ৩ জনকে নামীয় আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে।

মামলার বিবরনে জানা যায় জেলার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমুল ইউনিয়নের আজ্ঞা পুর মোর্শেদা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ের এক অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী কে বুধবার রাতে আধারে দরজা খুলে স্হানীয় ৩ বখাটে যুবক জোর পূর্বক ধর্ষন করে। এ সময় ওই স্কুল ছাত্রীর আত্মচিৎকারে এলাকা বাসী এগিয়ে আসলে বখাটে যুবকরা পালিয়ে যায়। ভিকটিম ও পুলিশ জানায় বুধবার রাত ১০ টার সময় আজ্ঞা পুর মোর্শেদা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী নিজ ঘরে লেখা পড়া করার সময় একই এলাকার ৩ বখাটে দরজা খুলে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

এঘটনায় ভিকটিমের পিতা মোঃ এরশাদ হোসেনগত বৃহস্পতিবার রাতে বাদী হয়ে ৩ জনকে নামীয় আসামী করে বুড়িচং থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে। আসামীরা হলো মাহমুদ(১৯) পিতা মিজানুর রহমান, মীর হোসেন (২০) পিতা আলী হোসেন, সামদানী (২৫) পিতা রফিজ মিয়া সর্ব গ্রাম আজ্ঞা পুর।

বুড়িচং থানার ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান শুক্রবার দুপুরে ভিকটিম নিজে কুমিল্লা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ গোলাম মাহাবুব খানের নিকট ২২ ধারা মতে জবান বন্দী দেন।

অপর দিকে ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস বলেন আসামিদের কে গ্রেফতারের অভিযান চলমান রয়েছে।