আশিকুর রহমানঃ কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশ উপজেলার বাড়ানী ও উত্তর চান্দলা গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে গাজা ও ইয়াবা ট্যাবলেট ব্যবসার অভিযোগে অমল কুমার বিশ্বাস (৪৮), তুরান কাজী (৪৮) এবং দিদারুল আলম (৩৫) কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। এসময় পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে তাদের কাছ থেকে ১০ কেজি গাজা ও ১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ জুন সোমবার দুপুরে ব্রাহ্মণপাড়া থানার এস আই যুযুৎসু যশ চাকমা, এএস আই মাঈনুল হক এএস আই নুরুল আমিন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্স সহ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের বাড়ানী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। একপর্যায়ে পুলিশ ঐ এলাকার ব্রাহ্মণপাড়া-মিরপুর সড়কের উপর থেকে মাগুরা জেলার সদর উপজেলার পারনান্দুয়ালী গ্রামের অনিল বিশ্বাসের ছেলে অমল কুমার বিশ্বাস (৪৮) এবং একই উপজেলার হাসপাতাল পাড়া গ্রামের মৃত কাজী আবু সাইদের ছেলে তুরান কাজী (৪৮) কে গ্রেফতার করে। এসময় পুলিশ তল্লাশী চালিয়ে তাদের কাছ থেকে ১০ কেজি গাজা ও একটি হিরো লাল রঙের মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। অপর দিকে একইদিন বিকেলে থানার এস আই রাজু আহাম্মেদ ও এস আই সাইফুজ্জামান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের উত্তর চান্দলা ভাঙ্গা ব্রীজ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ঐ গ্রামের উত্তর মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে মোঃ দিদারুল আলম (৩৫) কে গ্রেফতার করে। এসময় পুলিশ তল্লাশী চালিয়ে তার কাছ থেকে ১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। পরে গ্রেফতারকৃতদের বিরোদ্ধে থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করে গতকাল ২৫ জুন মঙ্গলবার সকালে কোর্টের মাধ্যমে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আবু মোহাম্মদ শাহজাহান কবির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।