ভুশ্চিতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্পত্তি দখলমুক্ত

ডেস্ক রিপোর্টঃ দখলদারদের দোকান ঘর উচ্ছেদ করে লালমাই উপজেলার ভুশ্চি বাজারস্থ ছোট শরীফপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২ শতক ২৭ সেন্ট সম্পত্তি দখলমুক্ত করলেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণের সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট ফারহানা জাহান উপমা। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় তিনি এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা যায়, ১৯৪০ সালে উপজেলার ভুলইন দক্ষিণ ইউনিয়নের ভুশ্চি বাজারস্থ ছোট শরীফপুর মৌজায় (খতিয়ান নং আর.এস-৩৫, দাগ নং ১১১) ২৫  শতক সম্পত্তির উপর প্রতিষ্ঠিত হয় ছোট শরীফপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বাজারের উচ্চ মূল্যের সম্পত্তি হওয়ায় প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিদ্যালয়ের কিছু সম্পত্তি বেদখল হয়ে যায়। ওই বেদখলীয় সম্পত্তিতে দোকানঘর নির্মাণ করে দীর্ঘদিন ধরে ভাড়া আদায় করে আসছিলেন স্থানীয় বারাইপুর গ্রামের মৃত আলী আকবরের ছেলে জয়নাল আবদীন, মৃত হাজী আব্বাসের ছেলে মোতালেব হোসেন এবং বিদ্যালয়ের বর্তমান সভাপতি হেদায়েতুল ইসলাম। অবশ্য পরে হেদায়েতুল ইসলামের নির্মাণ করা চা দোকানটি নিজের দাবী করে পাল্টা দখলে নেয় একই ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মৃত অধ্যাপক দেলোয়ারের ছেলে মোস্তফা কামাল অপু। এসব দখলকারীদের উচ্ছেদ করে সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার করতে বার বার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছিল বিদ্যালয় কৃতপক্ষ। অবশেষে বিদ্যালয়ের বর্তমান প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশিদের লিখিত আবেদন এবং উপজেলা সার্ভেয়ার খোরশেদ আলমের তদন্ত প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে সরকারি সম্পত্তি দখলমুক্ত করতে একটি উচ্ছেদ মামলা (নং ৩১, ২০১৭/১৮) রুজু করা হয়।

মামলা নিষ্পত্তি প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা মোতাবেক গত ৯ জানুয়ারী দুপুরে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে বিদ্যালয়ের বেদখলীয় ২ শতক ২৭ সেন্ট সম্পত্তি দখলমুক্ত করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট ফারহানা জাহান উপমা। এসময় উপজেলা সার্ভেয়ার খোরশেদ আলম, ভুশ্চি বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক কমল, ভুলইন ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা হেলাল আশ্রাফী, ভুলইন দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী রুহুল আমিন, বিদ্যালয়ের সভাপতি হেদায়েতুল ইসলাম, সহ-সভাপতি ফরিদুল ইসলাম ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশিদ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: