মুরাদনগরে ডিবি পরিচয়ে অপহরন ও ছিনতাই

মুরাদনগর প্রতিনিধিঃ মুরাদনগরে প্রকাশ্য দিবালোকে ডিবি পরিচয়ে অপহরন ও টাকা ছিনতাই করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মুরাদনগর-ইলিয়টগঞ্জ সড়কের বাবুটিপাড়া গ্রামের রামপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পূর্ব পাশে গত রোববার দুপুরে ডিবি পুলিশের পোশাক পড়ে ও পিস্তল দেখিয়ে সিএনজি বেবীটেক্সি থামিয়ে ২ ভাই-বোনকে অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে তাদের সাথে থাকা ৩ লাখ ৩৭ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রায় ৪ ঘন্টা পর জেলার দেবিদ্বার উপজেলার ভিংলাবাড়ীর ব্রীজের নিকট তাদের ফেলে যায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত রোববার মুরাদনগর উপজেলার বাবুটিপাড়া গ্রামের হাজী আবদুল ওয়াদুধের ছেলে আবদুল আল মাসুক ও তার বোন নাজমা বেগম সাড়ে ১১টায় ইলিয়টগঞ্জ সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক হতে ৩ লাখ ৩৭ হাজার টাকা উত্তোলন করে সিএনজি বেবীটেক্সি যোগে বাড়ী ফেরার সময় মুরাদনগর- ইলিয়টগঞ্জ সড়কের বাবুটিপাড়া গ্রামের রামপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পূর্ব পাশে ডিবি পুলিশের পোশাক পরিহিত ৪ জন একটি মাইক্রোবাস বেড়িকেড দিয়ে সিএনজি বেবীটেক্সিকে থামিয়ে মাসুক ও তার বোনকে অপহরন করে মাইক্রোতে উঠিয়ে নিয়ে যায় এবং তাদের সাথে থাকা ৩ লাখ ৩৭ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে বিকেল ৪টার দিকে জেলার দেবিদ্বার উপজেলার ভিংলাবাড়ীর ব্রীজের নিকট তাদেরকে ফেলে যায়।

সন্ধ্যায় মাসুক মুরাদনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য মুরাদনগর থানার অফিসার-ইন-চার্জ এস এম বদিউজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ও সিএনজি বেবীটেক্সি চালককে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এ ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার অফিসার-ইন-চার্জ এস এম বদিউজ্জামান ঘটনার সত্যতাস্বীকার করে বলেন, ডিবি পুলিশের পোশাক পড়ে ছিনতাই করলেও তারা পুলিশের লোক নয়। ধারনা তারা আন্তঃজেলা ছিনতাইকারী চক্রে সদস্য। তদন্তে শীঘ্রই এর রহস্য বেরিয়ে আসবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ