নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট মো. আমিনুল ইসলাম টুটুল বলেছেন, শ্রেণিকক্ষে পাঠদান বিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ন অংশ কিন্তু একমাত্র কাজ নয়। পাঠ্যপুস্তকের পাশপাশি শিক্ষার্থীদের সহ-শিক্ষা কার্যক্রমে উৎসাহিত করতে হবে। একজন শিক্ষার্থীকে যোগ্য নাগরিক হিসাবে গড়ে তুলতে হলে সুস্থ বিনোদনের পাশাপাশি ক্রীড়া, সাহিত্য ও সংস্কৃতিমূখি করে গড়ে তুলতে হবে। অপসংস্কৃতি চর্চা ও স্মাটফোনের অপব্যবহার রোধে সবাইকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

গতকাল শুক্রবার বিকালে কুমিল্লা জিলা স্কুল মাঠে জাতীয় স্কুল,মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা ক্রীড়া সমিতি আদর্শ সদর উপজেলা আয়োজিত ৪৭ তম শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট মো. আমিনুল ইসলাম টুটুল এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ এর ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল।

কুমিল্লা জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাশেদা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ইকবাল হাছান। অনন্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা স্কাউট এর কমিশনার ও ইউসুফ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক এ কে এম মনিরুজ্জামান, উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি জহিরুল আলম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কুমিল্লা জিলা স্কুলের ক্রীড়া শিক্ষক ওবায়দুল ইসলাম মিয়া। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠান প্রধান,ক্রীড়া শিক্ষক সহ প্রায় দুই শতাধিক প্রতিযোগী উপস্থিত ছিলেন। পরে অতিথিরা ক্রীড়া প্রতিযোগীতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার ও সাটিফিকেট তুলে দেন। ক্রিকেটে (বালক) চ্যাম্পিয়ন হয় কুমিল্লা জিলা স্কুল টিম এবং ক্রিকেটে (বালিকা) চ্যাম্পিয়ন নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি বালিকা বিদ্যালয় টিম।