সদর দক্ষিণ প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের কুমিল্লা সদর দক্ষিণের শীনিবাস এলাকায় ডাকাতিকালে স্থানীয় জনতা ১ ডাকাতকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে। শুক্রবার মধ্যরাতে বিজয়পুর ইউপি মেম্বার মহিন উদ্দিন ও ফারুকের নেতৃত্বে এলাকাবাসী ডাকাত দলকে ধাওয়া করে আবুল হোসেন (২৮) কে আটক করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত ডাকাতদল চক্র কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের শ্রীনিবাস এলাকায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখে ফাঁকি দিয়ে ওই সড়কে চলাচল করা গাড়িতে রড নিক্ষেপ করে একের পর এক ডাকাতি চালিয়ে আসছে। শুক্রবার রাতেও ডাকাতদল চক্রটি দু’দফা ডাকাতিকালে যাত্রীদের শোর চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ১৫/১৬ জনের ডাকাতদলকে ধাওয়া করে আবুল হোসেন নামের এক ডাকাতকে আটক করে। এ সময় ডাকাতদলের অন্যান্য সদস্যরা ফাঁকা গুলি করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পালিয়ে যায় বলে জানায় স্থানীয়রা। আটককৃত ডাকাতকে গণধোলাই দিয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়। তার কাছ থেকে চাপাতি ও চুরি উদ্ধার করেছে বলে জানায় পুলিশ ।আটককৃত ডাকাতের বাড়ি বুড়িচং থানার কংশনগর। ইউপি মেম্বার মোঃ মহিন উদ্দিন জানায়,ডাকাতির সময় সড়কে চলাচলকারী যাত্রীদের চিৎকার শুনে এলাকাবাসীকে নিয়ে জীবনবাজি রেখে ডাকাতদলকে ধাওয়া করে এক ডাকাত ধরতে সক্ষম হয়েছি। শ্রীনিবাস এলাকা থেকে ভবিষ্যতেও ডাকাতি,মাদকসহ সামাজিক সকল অপরাধ দমনে প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে আন্তরিকতার সাথে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।

এ ব্যাপারে সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জানান,ডাকাতির ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। একজন কে গ্রেফতার করা হয়েছে।পলাতকদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: