কুমিল্লার হোমনায় এক ব্রাক কর্মী মাসুদ রানা (৩১) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে । আজ শনিবার ঢাকা আইসিডিআরবি পাঠানো করোনার রিপোর্ট তার পজেটিভ আসে । এদিকে করোনা পজেটিভ আসায় হোমনা ও দুলালপুর শাখা ব্রাক অফিস এবং তার ভাড়া বাসা লকডাউন ঘোষনা করেছে উপজেলা প্রশাসন। এতে অফিসে কর্মরত ও বাসার সংস্পর্শে থাকা সকলকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। তিনি ব্রাকের উপজেলার দুলালপুর শাখা অফিসের প্রোগাম অগ্রানাইজার এবং গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার ডুমুরিয়া গ্রামের মোসলেহ উদ্দিনের ছেলে ।

বিজ্ঞাপন

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প.কর্মকর্তা ডা.আব্দুছ ছালাম সিকদার জানায়, করোনার উপসর্গ থাকায় গত ৩০ এপ্রিল নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা আইসিডিআরবি পাঠানো হয়েছিল। শনিবার তার করোনার পরীক্ষার রির্পোট পজেটিভ আসায় তাকে হোমনা সদর ব্রাক অফিসে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে । সে ব্রাক হোমনা দুলালপুর শাখায় চাকুরী করে এবং গত ৪ এপ্রিল গ্রামের বাড়ি গাজীপুর থেকে হোমনা আসে ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাপ্তি চাকমা ও থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দের উপস্থিতিতে ব্রাক কর্মীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসায় হোমনা, দুলালপুর শাখা ব্রাক অফিস ও তার ভাড়া বাসা লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে এবং লাল নিশান টাঙ্গিয়ে দেওয়া হয়েছে ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাপ্তি চাকমা অফিস বলেন, করোনা পজেটিভ হওয়ায় ব্রাক অফিস এবং তার ভাড়া বাসা লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে । তার সংস্পর্শে থাকা বাকীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওযা হয়েছে । তিনি বলেন আপনি ভয় পাবেন না, আমরা আছি আপনার পাশে । তিনি করোনার রোগীর জন্য মমতার পরশ হিসেবে খাদ্য চাল, ডাল, আলু, পেয়াঁজ, কেক,নুডলস,চা,লং আদা, লেবু, ডিম,কলা,আপেল,খেজুর, সরিষার তেলও ওয়াটার হিটার প্রদান করেন ।