করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য আরটিপিসিআর ল্যাব স্থাপন করবে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি)। কুমিল্লা-চাঁদপুর অঞ্চলে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আক্রান্তদের দ্রুত শনাক্ত করতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপিত হতে যাওয়া ল্যাবে কোনো নমুনা সংগ্রহ করা হবে না। শুধুমাত্র বিভিন্ন স্থানে সরকারি ব্যবস্থাপনায় সংগ্রহ করা নমুনা গুলো এখানে আরটিপিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হবে। এরইমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন স্থানে ল্যাব স্থাপন করা যায় তা নির্ধারণে একটি প্রতিনিধি দল ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করে গেছে।

ল্যাব স্থাপনের বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশে করোনার যে খারাপ অবস্থা তার জন্য আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ল্যাব স্থাপন করে করোনার নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। করেনা ভবিষ্যতেও পুরোপুরি যাবে না। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়েরও কিছু দায়বদ্ধতা আছে। কুমিল্লায় অনেক স্যাম্পল আসে। এগুলো সক্ষমতার অভাবে পরীক্ষা করানো যাচ্ছে না। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর সাথে আমার কথা হয়েছে।

এ বিষয়ে রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ড. মো. আবু তাহের বলেন, মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর পরামর্শে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মহোদয় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ ক্রান্তিকালীন সময়ে সবাইকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। আমরা এটা ২-৩ সপ্তাহের মধ্যেই চূড়ান্ত করতে পারবো আশা করছি।

প্রসঙ্গত, কুমিল্লায় বর্তমানে সরকারিভাবে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে একটি আরটিপিসিআর ল্যাব রয়েছে। তবে বৃহত্তর কুমিল্লা অঞ্চলে করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় সেখানে নমুনা শনাক্তে ধীরগতির সৃষ্টি হচ্ছে। কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে আরটিপিসিআর ল্যাব স্থাপন হলে এ অঞ্চলে করোনা শনাক্তে গতিশীলতা বাড়বে এবং মানুষের ভোগান্তি লাঘব হবে বলে অভিমত সংশ্লিষ্টদের।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: