কুমিল্লার দেবিদ্বারে একটি আবাসিক ভবনের তালাবদ্ধ ফ্ল্যাট থেকে এক নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে পৌরসভার গোমতী আবাসিক এলাকার ‘পুষ্পকুঞ্জ’র চতুর্থ তলার পূর্বপাশের ফ্ল্যাট থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। বাড়ির মালিক সাবেক উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা হাজী মো. আবদুল ওয়াহেদ। তবে এ ফ্ল্যাটটি বাইর থেকে তালা লাগানো ছিল।

বাড়িওয়ালার মেয়ে ইউপি সদস্য জেসমিন আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার ইফতারের পর চতুর্থ তলা থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশকে খবর দেন তিনি। পরে পুলিশ এসে তালা ভেঙে খাটের ওপর থেকে খয়েরি রঙের বোরকা পরা উপুর হয়ে পড়ে থাকা ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে। এ সময় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো একটি সাদা ওড়নাসহ বিভিন্ন আলামতও উদ্ধার করে পুলিশ।

বাড়ির মালিকের ছেলে মো. শাহজালাল বলেন, চলতি মাসের ১৮ তারিখে স্বামী-স্ত্রী ও একটি কন্যা সন্তান নিয়ে বাড়ির চতুর্থ তলার এ ফ্ল্যাটটি ভাড়া নেন এক যুবক। ভাড়া নেয়ার সময় এনআইডি কার্ড চাওয়ার পর ফটোকপি করে এনে দেবেন বলে জানান। পরে ২০ এপ্রিল পুনরায় এনআইডি কার্ড চাওয়ায় বিকেলে দেবেন বলে জানান ওই নারীর স্বামী। এরপর বিকেল থেকে তাদের ফ্ল্যাটটি তালাবদ্ধ দেখতে পাই। তারা কৌশলে নাম-পরিচয় গোপন রাখেন। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ওই নারীর কোনো পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এএসপি (দেবিদ্বার-ব্রাহ্মণপাড়া সার্কেল) মো. আমিরুল্লাহ ও দেবিদ্বার থানার ওসি (তদন্ত) মো. মেজবাহ উদ্দিন।

এ ব্যাপারে এএসপি আমিরুল্লাহ বলেন, আমরা বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছি। লাশটি কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: