কুমিল্লার হোমনায় নির্মাণাধীন ড্রেন পরিষ্কারের কাজ করতে না চাওয়ায় সহকর্মীদের মারধরে মো. মোবারক হোসেন নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মোবারক উপজেলার শ্রীমদ্দি গ্রামের মো. আবুল হাসেমের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনরা জানান, সহায় সম্বলহীন মোবারক দিনমজুরের কাজ করে সংসার চালাতেন। রাত ১০টার দিকে তার কয়েকজন সহকর্মীর সঙ্গে উপজেলার শ্রীমদ্দি গ্রামে নির্মানাধীন ড্রেনের ময়লা পরিষ্কারের কাজ করতে যান তিনি। সেখানে ঘণ্টাখানেক কাজ করার পর মোবারক আজ ড্রেনের কাজ করতে পারবে না বলে চলে যাচ্ছিলেন। এ সময় সহকর্মী সগীর ও চান বাদশা তাকে কাজ ফেলে যেতে নিষেধ করেন।

এরপরও মোবারক চলে যেতে চাইলে তাদের মধ্যে কথাকাটাটি হয়। একপর্যায়ে সগীর ও চান বাদশাসহ অন্যসহকর্মীরা তাকে মারধর করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে স্বজনরা সেখান থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে হোমনা থানার ওসি আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে রোববার ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। মোবারক এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক। তার স্ত্রী অনেক আগেই তাকে ছেড়ে চলে গেছেন। সন্তানদের তিনি তার কাছে রেখে লালন-পালন করছিলেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: