কুমিল্লার চান্দিনায় পাঁচধারা গ্রামে বিয়ে করে অস্বীকার করায় যুবকের বাড়িতে অনশন করেন এক তরুণী। বিয়ের সম্পর্ক মেনে নেয়ায় অবশেষে অনশন ভেঙেছেন সেই তরুণী।

এর আগে বুধবার (২৬ মে) বিকাল থেকে বৃহস্পতিবার (২৭ মে) বিকেলে পর্যন্ত অনশন করেন ওই তরুণী।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটের দিকে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তরুণী জানান, তাদের বিয়ের সম্পর্ক মেনে নিয়েছে ছেলের পরিবার। তিনি অনশন ভেঙেছেন। সংসারে সুখী হওয়ার জন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

তার স্বামী চান্দিনার গল্লাই ইউনিয়নের পাঁচধারা গ্রামের প্রবাসী আবু ইউসুফের ছেলে সেনা সদস্য সালাউদ্দিন (২৫)।

জানা যায়, স্থানীয় মাতব্বরসহ পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ছেলের পরিবারকে বিয়ে মেনে নেয়ার জন্য চাপ দেয়। এসময় পরিবার তাদের বিয়ে মেনে নেয়। এসময় তরুণীর স্বামীও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, দুই বছর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পরিচয় ঘটে তাদের। এরপর দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে তারা দুজন ঢাকায় দেখা করেন। এর মধ্যে সালাউদ্দিন তাকে বিয়ে করে অস্বীকার করায় বুধবার তার বাড়িতে ছুটে আসেন ওই তরুণী।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: