কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এতে প্যানেল চেয়াারম্যানসহ সাতজন আহত হয়েছেন। ভাঙচুর করা হয়েছে ২ টি মোটরসাইকেল। দলীয় মনোনয়ন ঘোষণার মাত্র ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই এ হামলার ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার দুপুর দুইটার দিকে উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। জুমার নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে বের হওয়ার পরপরই নৌকার সমর্থকের ওপর দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

এ সময় প্যানেল চেয়ারম্যান সুলতান আহমদ মুন্সিসহ আরো সাতজনকে কুপিয়ে আহত করে সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে বুড়িচং থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী জাকির হোসেন জাহের অভিযোগ করে বলেন, কামাল হোসেনের নেতৃত্বে অন্তত্ব ৫০ জনের একটি দল তার সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। আহতরা বর্তমানে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে তিনি জানান।

অভিযুক্ত কামাল হোসেন জানান, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাকির হোসেন জাহের নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর মিছিল নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় তিনি মসজিদে ছিলেন। মসজিদ থেকে আসার পর বিষয়টি জানতে পেরে তার লোকজন একত্রিত হলে উভয়ের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে তার দুইজন সমর্থক গুরুতর আহত হয়।

বুড়িচং থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, দলীয় প্রতীক পাওয়া না পওয়ার বিষয় নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জাহের ও কামাল দুই জনই থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: