কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার শাহদৌলতপুর গ্রামে মঙ্গলবার রাতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে একটি বাড়ি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। এসময় নগদ প্রায় ১ লাখ টাকাসহ কমপক্ষে ৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের শাহদৌলতপুর গ্রামের বাদশা মিয়ার বাড়ির জামাল মিয়ার মাটির দেয়াল দিয়ে ঘেরা টিনের চালের ঘরটিতে মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ১১ টায় বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে। এসময় তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। পাশাপাশি কুমিল্লা থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট এসে প্রায় এক ঘন্টা পর আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনে। ক্ষতিগ্রস্থ জামাল মিয়ার ছেলে ইমন জানান,আমরা ঘুমে ছিলাম হঠাৎ আগুনের তাপে ঘুম ভাঙ্গলে দেখি পুরো ঘরে আগুন। এসময় আমরা দ্রুত বেড় হয়ে চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

জামাল মিয়া জানান, তিনি একটি ক্যান্ট র্বোড এ নাইটগার্ডের চাকুরী করেন। প্রতিদিনের মত গত মঙ্গলবার রাতেও তিনি কর্মস্থলে চলে যান। এসময় তার স্ত্রী ও ৩ ছেলে ঘরে ঘুমাচ্ছিল। তিনি আরো বলেন,ঘরে আমার জমানো ১ লাখ টাকা নগদ ছিল। আগুনে সেই টাকাসহ ঘরের অবশিষ্ট কিছুই রক্ষা পায়নি। জামাল মিয়া শাহদৌলতপুর গ্রামের সেকান্দর আলীর ছেলে। উল্লেখ্য তার একমাত্র আশ্রয় ঘরটি পুড়ে যাওয়ায় বর্তমানে খোলা আকাশের নীচে নিঃস্ব অবস্থায় রয়েছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: