গত রবিবার লালমাই উপজেলার পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড পেরুল গ্রামের দীঘির পাড় বাড়ির শামছল হক শামু পশ্চিম পেরুল গ্রামের ইমান আলীর মেয়ে মোসা: মরিয়ম আক্তার কে কুমিল্লা নিয়ে ৫ লক্ষ টাকা দেনমোহর ও ১ লক্ষ টাকা উসুল দিয়ে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার ৭ নং ওয়ার্ড কাজী মুজিবুর রহমানের অফিসে বিয়ে করেন।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, মরিয়ম আক্তার পেরুল উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী রোল নং :৩২ স্কুলে যাওয়া আসার সময় মরিয়ম প্রায় শামছল হক শামুর রিক্সায় করে যাতায়াত করতেন। তাছাড়া, বর শামছল হক শামুর ছোট মেয়ে বর্তমান স্ত্রী মরিয়ম আক্তার একই ক্লাসের ছাত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, শামছল হক শামুর মেয়ের বয়সী মেয়েকে বিয়ে করায় এলাকায় অনেক চাঞ্চল্যকর অবস্থা বিরাজ করছে। জনমনে নানা কথা উঠছে এলাকা জুড়ে, তাছাড়া অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া মরিয়ম আক্তার আজও সাবালিকা কিনা প্রশ্ন সবার মনে।

এব্যাপারে লালমাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে এম ইয়াসির আরাফাত বলেন, এই ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না। প্রথম আপনার থেকে শুনলাম, ঘটনাটি দেখে আমি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: