কোন ভাবেই কাঁটছে না কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থিরতা ও অনিয়ম

দিদারুল ইসলাম (তুহিন): একের পর এক বিশৃঙ্খল ঘটনায় কুমিল্লার বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ অস্থির হয়ে উঠেছে। কখনো ছাত্রদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, কখনো ভিসির সাথে দ্বন্ধ শিক্ষকদের, আবার কখনো শিক্ষকদের দুই গ্রুপের বাদানোবাদ।

গত  এক বছর আগে দুই হলের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষে প্রাণ হারায় মাকেটিং বিভাগের এক শিক্ষার্থী। কিছু দিন আগে এক পক্ষ অন্য পক্ষের ছাত্রদের হল থেকে পিটিয়ে বের করে দেয়। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে পরে।

অন্যদিকে ভিসির বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ শিক্ষকদের একটি অংশের। গত এক সপ্তাহ ধরে তালা ঝুলছে ভিসির কার্যালয়ে। শিক্ষকদের দাবি ভিসি সরাসরি অনিয়ম ও দুর্নীতির জড়িয়ে পরেছেন। সিনিয়র শিক্ষকদের বাদ দিয়ে ভিসির পরিচিত নতুন শিক্ষককে গবেষনার জন্য অর্থ বরাদ্দের অভিযোগ করেছে শিক্ষকরা।

আরও একটি ঘটনায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মকতা। শিক্ষকরা তাকে জামায়াত শিবিরের লোক বলে আক্ষা দেন। তাকে অনিয়ম করে এই পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানায় শিক্ষকরা।

কিছুদিন আগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিটি রাঁতের আধারে কে বা কাহারা ভেঙ্গে ফেলে। এ নিয়ে মামলায় হয়েছে। পরে প্রতিকৃতিটি নির্মাণ কাজে ত্রুটি থাকায় নিজে নিজে ভেঙ্গে পরেছে বলে বক্তব্য পাওয়া যায়।কিছুদিন আগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দেওয়া নিয়ে শিক্ষকদের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ঘটে। ভিসির বিরুদ্ধে অনিয়ম করে কর্মকর্তা নিয়োগের কথা সবার মুখে মুখে। কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ধরনের নিয়োগ বন্ধ করে দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ