দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ’র উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বদ্বী বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ও বিএনপি দেবীদ্বার উপজেলা সহ-সভাপতি এ,এফ, তারেক মূন্সী এবং তার সমর্থকদের উপর প্রতিপক্ষের হামলায় প্রায় ১০/ ১২ জন বিএনপি নেতা-কর্মী ও সমর্থক আহত হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। মারাত্মক আহত ২ বিএনপি সমর্থককে ঢামেক হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

মারাত্মক আহত ধামতী গ্রামের তাজুল ইসলাম চৌধূরীর পুত্র মহসীন চৌধূরী ও নবিয়াবাদ গ্রামের শোভা মিয়ার পুত্র রাকিব হোসেন’কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়, এখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
ঘটনাটি ঘটে সোমবার বিকেল ৫টায় উপজেলার ধামতী গ্রামের আজিম উদ্দিন পীর সাহেবের দরবার শরীফে।

এব্যাপারে উপজেলা পরিষদ’র উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিএনপি নেতা এ,এফ,এম তারেক মূন্সী বলেন, আসরের নামাজের পর আমার ২০/২৫জন সমর্থক নিয়ে ধামতী গ্রামের সর্বজন শ্রদ্ধেয় আজিম উদ্দিন পীর সাহেবের মাজার জিয়ারত করতে গেলে, আ’লীগ সমর্থিত ২৫/৩০জন পর পর ৫/৬টি ককটেল ফাটিয়ে আতংক সৃষ্টি করে। এসময় আমি আমার সমর্থকদের নিয়ে দরবারে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেই। সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা চায়নিজ কুড়াল, কিরিচ, রাম দা, লাঠি, রড, গ্যাস পাইপ নিয়ে দরজা ভেঙ্গে আমার নেতা-কর্মীদের বের করে এনে বেধরক কুপিয়ে ও পিটিয়ে ১০/১২জনকে আহত করে। এসময় ধামতী দরবারের খলিফা বাহাউদ্দিন বিন মহিউদ্দিন আমাকে নিয়ে পেছনের দরজা দিয়ে বের হওয়ার সময় ওরা ৩ রাউন্ড পিস্তলের গুলি ছুড়ে।

এব্যাপারে ধামতী দরবারের খলিফা বাহাউদ্দিন বিন মহিউদ্দিন’র সাথে সেল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা কথা বলা সম্ভব হয়নি।
অপরদিকে উপজেলা পরিষদ’র উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বদ্বী আ’লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও আ’লীগ কুমিল্লা (উঃ) জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ উপজেলার রাজামেহার ইউনিয়নে কর্মীসভা করাকালে সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় সেল ফোনে জানান, শোনেছি বিএনপির প্রার্থী সহ তার দলবল নিয়ে ধামতী গ্রামে সভা করার সময় উস্কানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছিল, এসময় আমার সমর্থকরা প্রতিবাদ করলে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে বেশ ক’জন কর্মীকে আহত করেছে। মারাত্মক আহত ধামতী গ্রামের ইউনিয়ন আ’লীগের সেক্রেটারী মো. রমিজ উদ্দিনের পুত্র যুবলীগ নেতা মো. জাকির হোসেন, একই গ্রামের ইউনিয়ন আ’লীগের সাবেক ত্রান ও সমাজকল্যান সম্পাদক মুছা মিয়ার পুত্র আঃ আলীম, ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আহাম্মদের পুত্র মো. জহিরুল ইসলাম, ধামতী মাদ্রাসা পাড়া ৪নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল খালেক’র পুত্র নজরুল ইসলাম সহ ৪জন। এছাড়াও ২/৩টি মোটর সাইকেল ভাংচুরের চেষ্টা করে ১ টি মোটর সাইকেলের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করেছে।

এব্যাপারে দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জহিরুল আনোয়ার জানান, শোনেছি ধামতী এলাকায় আ’লীগ প্রার্থীর পূর্বঘোষিত গনসংযোগ করার কথা, সেখানে বিএনপি’র প্রার্থী তার লোকজন নিয়ে গনসংযোগ করতে গেলে সংঘর্ষ বাধে। এব্যপারে কোন অভিযোগ পাইনি। সত্যতা যাচাইয়ে ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠিয়েছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: