এ আর আহমেদ হোসাইনঃ কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক দ্রুত সংস্কার, সিএনজি, অটোরিক্সা থেকে টোকেন দিয়ে চাঁদাবাজী বন্ধ, বরকামতা কাঠেরপুল হাইওয়ে পুলিশের ডাম্পিং থেকে দেবীদ্বারে সাড়ে ৫ হাজার গাড়ি ফেরতের দাবিতে বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লা উত্তর জেলা বাংলাদেশ রিক্সা ভ্যানচালক- শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজনে দেবীদ্বার নিউ মার্কেট চত্তরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ সমাবেস করেছে ।

এসময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ হয়ে যায় কুমিল্লা- সিলেট আঞ্চলিক মহা সড়কের দুইপাশের শত শত যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে দেবীদ্বার উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাকিব হাসান মোাইল ফোনে শ্রমিক নেতাদের সাথে কথা বলেন এবং তাদের সকল দাবির সাথে সহমত পোষণ করে খুব দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার নেওয়ার আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেন।

শ্রমিক নেতা মামুন সরকারের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেসে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা উত্তর জেলা সিএনজি- অটোবাইক- অটোরিক্সা মালিক চালক ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও রিক্সা ভ্যান চালক- শ্রমিক ফেডারেশন কুমিল্লা উত্তর জেলা সভাপতি মো. মমতাজ উদ্দিন মজুমদার। দেবীদ্বার পৌর এলাকার সভাপতি মো. হালিম মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলম, দপ্তর সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন, রিক্সা ভ্যানচালক-শ্রমিক নেতা মোঃ মামুনুর রশিদ, রাজামেহার ইউপি রিক্সা ভ্যান চালক-শ্রমিক ফেডারেশন সভাপতি আবদুল রলিফ, সুলতানপুর ইউপি রিক্সা ভ্যানচালক-শ্রমিক ফেডারেশন সাধারণ মো. আবুল হোসেন, জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশে মো. মমতাজ উদ্দিন মজুমদার বলেন, কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবীদ্বার নিউমার্কেট সড়ক দ্রæত সংস্কার, যানজট নিরশন, নিদিষ্ট স্থানে রিক্সা রাখার ষ্ট্যান্ড স্থাপন, ৫টি গুচ্ছ গ্রামের রিক্সা শ্রমিকদের ভাঙাঘর মেরামত, বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা, ৫ হাজার টাকার বিএডিসি লাইসেন্স করতে লাগে ৩০ হাজার, ১০ টাকার ট্রেজারী ৭০/৮০ টাকা, প্রতিমাসে ৩০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা পর্যন্ত টুল আদায়, না দিলে নির্যাতন চাবি আটকিয়ে রাখে এসব বন্ধ করতে হবে। শ্রমিকরা কারও দয়া নিয়ে বাঁচতে চায় না, তারা চাদাবাজি করে না, কারও সম্পদ লুট করেনা, গায়ে খেটে টাকা রোজগার করে আর এ টাকা থেকে কোন শ্রমিক আর কাউকে চাঁদা দিবে না। যারা শ্রমিকদের কষ্টে অর্জিত ঘামের টাকা হাত দিচ্ছেন আপনাদের লজ্জা থাকা উচিত, কিভাবে আপনারা এ টাকায় হাত দেন ? অবিলম্বে শ্রমিকদের ওপর নির্যাতন, পুলিশী হয়রানি বন্ধ করতে হবে, ৩ দফা দাবি মেনে সড়কে শ্রমিকদের নিরাপত্তা দিতে হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান জানান, শ্রমিক নেতারা আমার কাছে তাদের ৩ দফা দাবীর বিষয় জানিয়েছেন, তবে এই দাবীগুলো সমস্যা সমাধানে হাইওয়ে পুলিশ কর্তৃপক্ষ ও সড়ক ও জনপথ বিভাগেরে সাথে কথা বলে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: