কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে অগ্নিকান্ডে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানিয়েছে। রোববার রাতে উপজেলার ঢালুয়া উত্তর বাজারে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রায় ১১ টি দোকান ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। স্থানীয়রা জানান, রাতে আগুনে লেগে যায় উত্তর বাজারে।

আনুমানিক রাত ২ টার দিকে চারদিক থেকে লোকজন ছুটে এসে আগুন নিবানোর চেষ্টা করেন। দীর্ঘ সময় চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন এলাকাবাসী। খবর পেয়ে লাকসাম থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থল আসেন। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে, সাইদ মিয়ার খাবার হোটেল থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটতে পারে। তবে আগুনের সূত্রপাত এখনো জানা যায়নি। আগুনে পুড়ে গেছে ,সাইদ মিয়ার খাবার হোটেল, হাফেজ মো: হারেছ মিয়ার গড়ি,ইলেকট্রনিক,ও রাইস মেইল,মজিবুল হকের কসমেটিকস দোকান,আব্দুল জালিলের কসমেটিকস দোকান, ছকন মিয়ার চা দোকান, রউফ মিয়ার কসমেটিকস দোকান, মামুনের মেডিসিন দোকান, জয়নালের সারের দোকান, নুরুল আমিনের সারও বীজ দোকান, জিয়াউর রহমানের শুটকি দোকান।

ক্ষতিগ্রস্ত হাফেজ মো: হারেছ বলেন- আগুনে তার দুইটি দোকানঘর ও মালামাল পুড়ে গেছে। এতে কমপক্ষে ১৬ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আব্দুল জলিল বলেন- আগুনে তার মনহরী দোকানঘর ও মালামাল পুড়ে গেছে। এতে তার ১২ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। মজিবুল হকের দোকানঘর পুড়ে গেছে। এতে তার প্রায় ৪ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ঢালুয়া ইউপি আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা ছুট্টু বলেন- রাতে আগুনে ১১ টি দোকান ঘর পুড়ে গেছে। কমপক্ষে প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। রাতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু ইউছুপ ভূঁইয়া, ঢালুয়া ইউপির চেয়ারম্যান নাজমুল হাছান ভূঁইয়া বাছির।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: