মো.জাকির হোসেনঃ কুমিল্লার বুড়িচং থানাধীন দেবপুর ফাঁড়ী পুলিশ গতকাল সোমবার সকালে কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবপুর এলাকায় যাত্রিবাহী বাসে তল্লাসী চালিয়ে ৮ হাজার ২শ’ত ৭৮ পিস ইয়াবাসহ মোঃ সালেক (২৮) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। এদিকে থানা পুলিশ উপজেলার ধর্মনগর এলাকায় পৃথক আরেকটি অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি গাঁজাসহ ২ যুবককে গ্রেফতার করেছে।

বুড়িচং থানা অফিসার ইনচার্জ মনোজ কুমার দে জানান, গতকাল সোমবার সকালে বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর এস আই মোঃ শাহাদাত হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের বুড়িচং উপজেলার দেবপুর এলাকায় রাস্তায় চেকপোষ্ট দিয়ে বিভিন্ন গাড়ীতে তল্লাসী চালায়। সকাল সাড়ে ৯ টায় কুমিল্লা থেকে সিলেটগামী কুমিল্লা ট্রান্সপোর্ট পরিবহনের একটি বাস (রাজ মেট্টো-ব ১১-০০১১) থামিয়ে তল্লাসী চালিয়ে বাসে থাকা সন্দেহভাজন এক যাত্রীর ব্যাগ তল্লাসী চালিয়ে আচারের প্যাকেটে নিচে একটি গোলাপী রংয়ের কাপড়ের ব্যাগের মধ্যে বিশেষ কাগজ দিয়ে মোড়ানো নীল রংয়ের ৪৫টি প্যাকেট থেকে ৮ হাজার ২ শ’ত ৭৮ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত ইয়াবার মূল্য ২৪ লাখ ৮৩ হাজার ৪শ’ত টাকা। পুলিশ এসময় বি-বাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধনমন্ডল দৌলতপুর গ্রামের মৃত কিসলু মিয়ার ছেলে মোঃ সালেক (২৮)’কে আটক করে। পুলিশ আটককৃত যুবকের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় মামলা দায়ের পূর্বক কুমিল্লা বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেছে।

এদিকে গতকাল সকালে বুড়িচং থানার এস আই আবুল হাসনাত সঙ্গীয় ফোর্সসহ কুমিল্লা-বাগড়া সড়কের বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের ধর্মনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো- কক্সবাজার জেলাধীন টেকনাফ থানার দক্ষিন জালিয়াপাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আলমের পুত্র মোঃ রফিক আলম (১৮), একই এলাকার শামসুল আলমের পুত্র মোঃ এনায়েত উল্লাহ(১৮)। পুলিশ আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় মামলা দায়ের পূর্বক কুমিল্লা বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: