আগামী ১৫ জুন অনুষ্ঠেয় কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে এক মাস আগে থেকেই মাঠে নামানো হচ্ছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। ১৫ মে থেকে কুমিল্লা সিটি নির্বাচনি এলাকায় মোতায়েন করা হচ্ছে এক প্লাটুন বিজিবি। এছাড়া ১২ মে থেকে মাঠে থাকছেন তিন জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। প্রয়োজনে এই সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে বলেও জানা গেছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) নির্বাচন কমিশনের যুগ্মসচিব এসএম আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এসএম আসাদুজ্জামান বলেন, কুমিল্লা সিটি নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচনি এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি ১৫ মে থেকে এক প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হচ্ছে। এছাড়াও ১২ মে থেকে তিন জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন থাকবে। ইসির এক সভায় মঙ্গলবার এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ইসির যুগ্মসচিব আরও বলেন, কুমিল্লা সিটি নির্বাচনি এলাকার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখা ও সকল প্রকার শোডাউন বন্ধ করার জন্য স্থানীয় প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে।

এর আগে গত ২৫ এপ্রিল কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৭ মে, বাছাই ১৯ মে, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিন ২৬ মে, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ মে এবং ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৫ জুন।

উল্লেখ্য, দুটি পৌরসভাকে একীভূত করে ২০১১ সালে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন গঠন করা হয়। ওই বছরই প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ২০১৭ সালে পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েকটি ইউপিকে অন্তর্ভুক্ত করে আয়তন বাড়ানো হয়। বর্তমানে এই সিটিতে ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ড রয়েছে। গত নির্বাচনে এই সিটিতে ১০৩টি কেন্দ্রে ছিল আর ভোটার ছিল ২ লাখ ৭ হাজার ৫৬৬ জন। কুমিল্লা সিটি করপোরেশন গঠনের পর থেকে মেয়র পদে রয়েছেন মনিরুল হক সাক্কু।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: