ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলায় মো.নাছির উদ্দিন (২৬) নামের নৈশ প্রহরীকে কু’পিয়ে হ’ত্যা করে ছিন্নবিচ্ছিন্ন দেহটি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেলে যায় দুর্বৃ’ত্তরা।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) ভোররাতে উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের নাওতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নাছির উদ্দিন চান্দিনা উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের নাওতলা গ্রামের রবিউল্লাহর ছেলে। তিনি দীর্ঘ ৩ বছর ধরে নাওতলা সিনিয়র আলিম মাদ্রাসা পার্শ্ববর্তী মহাসড়কের দক্ষিণ পাশে বাচ্চু চেয়ারম্যান মার্কেটে পিতা রবিউল্লাহর পরিবর্তে মাঝে মাঝে নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করতেন।তার স্ত্রী ও একটি মেয়ে রয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মহাসড়কের পাশে বাচ্চু চেয়ারম্যান মার্কেটে ছোট একটি দোকানে ব্যবসার পাশাপাশি রাতে নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করেন নিহতের বাবা রবিউল্লাহ।বাবার শারিরীক অথবা পারিবারিক সমস্যা হলে তার পরিবর্তে নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করেন নাছির। সেই ধারাবাহিকতায় রবিবার রাতে নাছির দায়িত্বপালন করতে আসে। সোমবার ভোরবেলা নাছিরের বাবা দোকানের সামনে এসে র’ক্ত দেখে হাউমাউ করে চিৎকার শুরু করে।তার চিৎকারে পাশের লোকজন ছুটে এসে চারদিক খুঁজতে গিয়ে মহাসড়কে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ পরে থাকতে দেখে।

চান্দিনা থানা পুলিশ ও ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ছিন্নবিচ্ছিন্ন দেহটি উদ্ধার করেছেন। এ বিষয়ে চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল ফয়সল জানান, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।