প্রতিষ্ঠার এক যুগ পর আজ সোমবার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মো. আবদুল হামিদ এতে সভাপতিত্ব করবেন।

বক্তব্য দিবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বিশেষ অতিথি থাকবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কাজী শহিদুল্লাহ।

মোট ২ হাজার ৮৮৮ জন স্নাতক সমাবর্তনে যোগ দিচ্ছেন। সমাবর্তন উপলক্ষে কুবি ক্যাম্পাস বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এসব তথ্য জানান কুবি উপাচার্য প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী।

এদিকে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার তের বছর পর সমাবর্তন উপলক্ষে সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবন, আবাসিক হল ও প্রধান ফটকে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। সমাবর্তনে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা ইতোমধ্যে উৎসবমুখর পরিবেশে সমাবর্তন পোশাক, টুপি ও ব্যাগ সংগ্রহ করেছেন।

কুবি উপাচার্য প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী জানান, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয়টি অনুষদের পাঁচ হাজার ৬৪৮ জন স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মূল সনদ দেয়া হবে। শিক্ষা জীবনে অসামান্য অবদানের জন্য একই অনুষ্ঠানে ১৪ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক দেয়া হবে।

স্নাতক পর্যায়ের স্বর্ণপদক জয়ীরা হলেন, ২০০৬-০৭ শিক্ষাবর্ষের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মোসা. নয়ন তারা, ২০০৭-০৮ শিক্ষাবর্ষের মার্কেটিং বিভাগের নাসরিন আক্তার ঝুমুর, ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের রাবেয়া জামান, ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আমেনা বেগম, ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মোহাম্মদ কামরুল হাসান, ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের পরিসংখ্যান বিভাগের উম্মুল খায়ের সুমি এবং ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের রিপা আক্তার।

এছাড়া স্নাতকোত্তরে অসাধারণ একাডেমিক ফলাফলের জন্য ৬ জন রাষ্ট্রপতি স্বর্ণপদক পাচ্ছেন। তারা হলেন, ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মাসুদ রানা, ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের গণিত বিভাগের খাদিজা বেগম, ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের পারভিন আক্তার, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের মাহিনুর আক্তার, ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আমেনা বেগম, ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সানজিদা হক। স্বর্ণপদক প্রাপ্তদের মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আমেনা বেগম স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর উভয় পর্যায়েই স্বর্ণপদক অর্জন করবেন।

স্বর্ণপদক অর্জনকারী ১৪ জনের মধ্যে ১১ জন নারী রয়েছেন। এদিকে সকল গ্র্যাজুয়েট ও তাদের স্বজনদের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। রোববার তারা ক্যাম্পাসে সমবেত জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন। দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পাসে আসা সহপাঠীদের আনন্দ-উচ্ছ্বাসে প্রাণের সঞ্চার হয়। কেউ এসেছেন স্বামী-স্ত্রী-সন্তান কিংবা বাবা-মাকে নিয়ে। তারা একে অপরের সঙ্গে সেলফি তোলায় ব্যস্ত সময় পার করেন।

উল্লেখ্য, দেশের ২৬তম সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে কুবি সাতটি বিভাগ নিয়ে ২০০৬ সালে যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে এখানে ১৯ বিভাগে ২৫৩ শিক্ষক এবং ৭ হাজার ৫৫ শিক্ষার্থী রয়েছেন।

সূত্র : জাগো নিউজ