কুমিল্লার চান্দিনায় মাইক্রোবাসে ছু’রিকাঘাতে মিজানুর রহমান নামে এক মুরগি ব্যবসায়ীকে ছু’রিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চান্দিনা উপজেলার নূরীতলা এলাকায় এ হ’ত্যাকাণ্ড ঘটে।

নিহত মিজানুর রহমান কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলার ভানী ইউপির বরাট গ্রামের সিরাজুল ইসলাম মেম্বারের ছেলে।

নিহতের ভাগিনা রাসেল জানান, রোববার সকালে বরাট বাজারে মিজানুর রহমানের দোকানে মুরগি কিনতে যায় পার্শ্ববর্তী সাইতলা গুচ্ছ গ্রামের মো. আজিজ এর ছেলে আহাম্মদ আলী। ওই সময়ে মিজানুর রহমান এর ছোট ভাই সফিউল্লাহ সুফী দোকানে বসা ছিল। আহাম্মদ আলী মুরগি কেনার পর ফোন করার অযুহাতে সুফীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি নিয়ে পালিয়ে যায়। সারাদিনেও মোবাইল ফোনটি ফেরত দেয়নি। সন্ধ্যায় মিজানুর রহমান মাইক্রোবাস যোগে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চান্দিনা থেকে বাড়ি ফেরার সময় ওই গাড়িতে আহাম্মদ আলীর সঙ্গে দেখা হয়।

এ সময় দুই জনের মধ্যে মোবাইল ফোনের বিষয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে গাড়িটি নূরীতলা নামক স্থানে পৌঁছালে আহাম্মদ আলী ছু’রি দিয়ে মিজানুর রহমানের শরীরের বিভিন্ন অংশে ছু’রিকাঘাত করে। পরে অ’স্ত্রের মুখে চালককে হুমকি দিয়ে গাড়ি থামিয়ে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন তাকে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে চান্দিনা থানার ওসি মো. আবুল ফয়সল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান- খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ ঘটনাস্থলে যাই। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি ও আসামিকে গ্রেফ’তারের চেষ্টা চলছে।