লাকসাম প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার হেসাখাল গ্রামের নিউজিল্যান্ড প্রবাসী ছাত্রদল নেতা সাইফুল ইসলাম মজুমদার তার ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, এলজিআরডি মন্ত্রী, নাঙ্গলকোট উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতিকে কটুক্তি করে গত কয়েকমাস ধরে বিভিন্ন অশ্লীল লেখা ও অবমাননাকর পোষ্ট করে আসছে। সে ওই ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম মজুমদারের ছেলে। সাইফুল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভূয়া পেইজ আইডির গ্রুপ এডমিন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

সম্প্রতি হেসাখাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, সাইফুল ইসলাম তার ফেসবুকে উন্নয়নের মহানায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বৃহত্তর কুমিল্লার সূর্য সন্তান অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) এবং এলজিআরডি মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামকে নিয়ে কয়েকদিন পরপর আপত্তিকর মন্তব্য করে পোষ্ট করে। সাইফুল ইসলামের এমন মানহানীকর অশ্লীল কর্মকান্ডের প্রতিবাদে হেসাখাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ তার পিতা বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর আলম মজুমদারকে একাধিকবার সতর্ক করেও কোন প্রতিকার পায়নি। এ নিয়ে কয়েকবার সামাজিক ও দলীয়ভাবে শালিসও করা হয়েছে। দেশ এবং দেশের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার বন্ধে অতিদ্রুতই তাকে আইনের আওতায় আনতে তারা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে আহবান জানান।

এ বিষয়ে এলাকার সচেতন জনগণ উন্নয়নের মহানায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দেশের প্রশাসনের নিকট আকুল আবেদ করেন, প্রবাসে বসে রাষ্ট্র বিরোধী কার্যক্রম, রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিদের নিয়ে মিথ্যা, বানোয়াট এবং আপত্তিকর পোষ্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারকারী বিএনপি নেতার ছেলে ছাত্রদল নেতা সাইফুলকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হোক। বর্তমানে সাইফুল বাংলাদেশে অবস্থান করছে এবং রাতে রাতে বাড়িতে এসে আবার রাতের আঁধারেই চলে যায়।