কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন শাওন ট্রেডার্সের একটি মুরগির খামারে বৈদ্যতিক শক সার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় খামারের পাশের হযরত মা আয়েশা (রাঃ) হর্টি কালচার নার্সারীর প্রায় দুই হাজার দেশী বিদেশী বিভিন্নি প্রজাতির গাছের চারা আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এঘটনায় ওই নার্সারী মালিকের প্রায় ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেছেন নার্সারী মালিক মোঃ আরিফুল ইসলাম।

তিনি জানান, ১ মার্চ দুপুরে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন শাওন ট্রেডার্সের মুরগির খামারে বৈদ্যতিক শক সার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়ে মূহর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিক্ষা পুরো খামারে ছরিয়ে পরে। এসময় ওই খামারের সাথে থাকা হযরত মা আয়েশা (রাঃ) হর্টি কালচার নার্সারীর প্রায় দুই হাজার দেশী বিদেশী ফল ও বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তিনি আরও জানান, তার নার্সারীতে কলম চারা উৎপাদনের জন্য বিভিন্ন ফল ও ফুলের যে সকল মা গাছ ছিল সব গাছ আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। এতে তার প্রায় ৫লক্ষ টাকার দেশী, বিদেশী ফল, ফুল ও কলম চারা গাছ পুড়ে ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেছেন তিনি। তিনি বলেন, এই নার্সারীটি ছিল তার জীবিকা নির্বাহের এক মাত্র সম্বল। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় নার্সারী পুড়ে যাওয়া তিনি এবং তার নার্সারীতে কর্মরত কর্মচারীরা এক প্রকার দৈনন্দিন ইনকাম শূন্য হয়ে পড়েছেন। এ ব্যাপারে তিনি সরকারের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন।

এব্যাপারে বুড়িচং ফায়ার স্টেশন ইনচার্জ মোঃ সোহেল আহাম্মেদ বলেন, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন সাওন ট্রেডর্সে অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থরে এসে প্রায় ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রনে এনেছি।

খবর পেয়ে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফৌজিয়া সিদ্দিকা’র প্রতিনিধি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ এনামুল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: