কুমিল্লা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে নগরীর ধর্মপুর এলাকা থেকে ১২ জুয়ারীকে গ্রেফতার করেছে। এসময় জুয়া খেলার সরঞ্জামাদি ও নগদ টাকা উদ্ধার করে পুলিশ।

কুমিল্লা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদের সার্বিক দিক নির্দেশনায় নগরীর ধর্মপুর ও রেলগেইটের আশেপাশের জুয়ার আসরগুলোতে ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিমের নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক মঞ্জুর কাদের ভূইয়া, এস আই শাহিন কাদির সঙ্গীয় ফোর্সসহ সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করে।

এসময় জুয়া খেলা ও করোনা সংক্রমন ছড়ানোর অভিযোগে ১২ জুয়ারীকে আটক করে। অভিযানে জুয়া খেলার সরঞ্জামাদী ও নগদ ৪৭ হাজার ৫ শত ৫০ টাকা উদ্ধার করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো মোঃ দুলাল (৫০), আক্তার হোসেন (৪৫), মোঃ মাসুদ রানা (৪০), এরশাদ আলী (৩০), মোঃ রানা(৩৫), মোঃ রাসেল মিয়া (৩০), রওশন আলী (৪৫), ইব্রাহিম খলিল (৩০), মোঃ সুমন মিয়া (৩০), মোঃ ইকবাল হোসেন স্বপন (৩৭), মোঃ রুবেল মিয়া (২৫) এবং জুয়ার আসর পরিচালনাকারি মোঃ শাকিল হোসেন (৩৩)।

পুলিশের এ অভিযানকে এলাকাবাসী স্বাগত জানিয়ে বলেন, জুয়ার আসরগুলোর কারনে এলাকার যুব সমাজ ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলো। তাছাড়া করোনা পরিস্থিতিতে লোকজন একত্রিত হয়ে জমাট বাঁধার কারনে সংক্রমন বৃদ্ধির ঝুঁকি ছিলো।

পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বলে, জুয়া ও মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান অব্যহৃত থাকবে। আপনার পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করলে সমাজ থেকে অপরাধ নিমূল করা সহজ হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: