কুমিল্লা সদর এবং সদর দক্ষিণ উপজেলায় অভিযান চালিয়ে পাসপোর্ট দালাল চক্রের নয়জন সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-১১, সিপিসি-২ এর একটি আভিযানিক দল।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে র‌্যাব-১১ সিপিসি-২ এর কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

আটকরা হলেন- কুমিল্লার দাউদকান্দি বাজার এলাকার নায়েব আলীর ছেলে মো. মিজানুর রহমান (৪৯), বুড়িচংয়ের আবিদপুর গ্রামের আ. রহিমের ছেলে আলাউদ্দিন (৩৫), আদর্শ সদরের ছোবিরা গ্রামের ফুলমিয়ার ছেলে জহিরুল হক (৪০), দেবিদ্বারের ছোবরা গ্রামের ইব্রাহিম খলিলের ছেলে মো. রনি (২৩), আদর্শ সদরের শামন্যাছা গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে মোশারফ হোসেন শফিক (১৯), ছোটরার গোলাম মহিউদ্দিনের ছেলে জামাল মিয়া (৫৫), সদর দক্ষিণের দয়াপুর গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে মো. আলাউদ্দিন (১৯), রাজাপুর গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (১৯) ও আদর্শ সদরের গুনানন্দি গ্রামের আলী আজমের ছেলে মো. নাছির (২৬)।

মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন জানান, অভিযানে গ্রেফতার আসামিদের থেকে ৪৪টি পাসপোর্ট, এক লাখ ৫৭ হাজার টাকা, ৭২৮টি পাসপোর্টের ব্যক্তিগত ডেলিভারি স্লিপ এবং মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন নথিপত্র উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে আটক আসামিরা সবাই পাসপোর্ট দালাল চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করে এবং তারা দীর্ঘদিন ধরে পাসপোর্ট তৈরি করে দেওয়ার নাম করে ভুক্তভোগী লোকজনের কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত টাকার অধিক পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল বলে স্বীকার করে। তাদের কাছে টাকা জমা দিলে তারা বিভিন্নভাবে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রস্তুত করে সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করে পাসপোর্ট অফিস থেকে পাসপোর্ট সংগ্রহ করে সরবরাহ করতো বলে স্বীকার করে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: