ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লায় প্রকাশ্যে অস্ত্রের মুখে বিকাশ এজেন্টের ৫৮লাখ টাকা লুটের ঘটনায় অন্যতম আসামী মন্টু সরকারকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। শনিবার রাতে জেলার তিতাস উপজেলার মোটুপি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল এবং ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। রবিবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে এক প্রেসব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আজিম-উল আহসান।

জানা যায়, গত ২১ ফেব্রুয়ারি জেলার তিতাস উপজেলার দড়িকান্দির ব্রিজের নিকটে বিকাশ এজেন্টের কাছ থেকে ১০/ ১২ জনের একটি সন্ত্রাসী দল অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৫৮লাখ টাকা লুটে নেয়। এ ঘটনায় আগে গ্রেফতার হওয়া ৫ জনের মধ্যে অমর নম ও শফিউল্লাহ নামে দুই ডাকাত আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে ঘটনার সাথে মন্টু সরকারসহ জড়িত অপর ডাকাতদের নাম প্রকাশ করে। এরই প্রেক্ষিতে ডিবি’র ওসি মাঈনুদ্দিন খানের নেতৃত্বে এসআই সহিদুল ইসলাম পিপিএমসহ ডিবির একটি টিম অভিযান চালিয়ে তিতাস উপজেলার মৌটুপি গ্রামের খলিল সওদাগরের ছেলে মন্টু সরকারকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী একই গ্রামের বাতেন সরকারের ঘর থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির এসআই নন্দন চন্দ্র সরকার জানান, গ্রেফতারকৃত মন্টু সরকারের বিরুদ্ধে অস্ত্র, হত্যা, ডাকাতিসহ তিতাস ও দাউদাকান্দি থানায় এক ডজন মামলা রয়েছে। এর আগে এ মামলায় অভিযান পরিচালনা করে ডাকাতি হওয়া টাকার মধ্যে ১৫ লাখ টাকা উদ্ধার এবং ৫জনকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: