কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার তীর চর এলাকায় এক মাদ্রাসা ছাত্রী (১৪ কে ধর্ষনের ঘটনায় কুমিল্লা র‌্যাব-১১,সিপিসি-২ এর একটি ২ আগষ্ট গভীর রাতে কুমিল্লা মহানগরীর পদুয়ারবাজার এলাকা থেকে আবুল বাশার (৫০) নামের এক মসজিদের ইমামকে গ্রেফতার করেছে। এর আগে ধর্ষিতার পিতা চান্দিনা থানায় তার বিরুদ্ধে ধর্ষন মামলা রুজু করে।

র‌্যাব সুত্র জানায়, জেলার চান্দিনা উপজেলার শব্দলপুর গ্রামের মুন্সীবাড়ির মৃত মোতালেব মুন্সীর পুত্র আবুল বাশার একই উপজেলার তীরচর এলাকায় নয়াবাড়ি মসজিদের ইমাম হিসেবে দায়িত্বপালন করার পাশাপাশি আরবি শিক্ষাদান করে আসছিল। গত ২২ জুলাই থেকে ২৪ জুলাই পর্যন্ত সময়ে ইমাম আবুল বাশার মাদ্রাসা শিক্ষার্থী (১৪) ওই কিশোরীকে আটকে রেখে ধর্ষন করে। এঅবস্থায় সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তার ভাই আবু ইউসুফের কাছে কিশোরীকে রেখে সে পালিয়ে যায়। এঘটনায় ধর্ষিতার পিতা চান্দিনা থানায় মামলা করে।

এদিকে ঘটনার পর ইমাম আবুল বাশার এলাকা ছেড়ে পালিয়ে আত্নগোপন করে। পরবর্তীতে র‌্যাব-১১,সিপিসি-২ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমিল্লা মহানগরীর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে হোটেল নুরজাহানের সামনে ২ আগষ্ট গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আবুল বাশারকে গ্রেফতার করে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: