নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লা জেলা ডি.বি পুলিশ কর্তৃক  ৬শ’ বোতল ফেন্সিডিল,  ১টি প্রাইভেটকারসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ী আটক হয়েছে। 

১৭ মে  এসআই নন্দন চন্দ্র সরকার, এএসআই মোঃ শাহিনুর ইসলাম, এএসআই মোঃ শাহাবুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনাকালে রাত্র ২১:৪৫ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতয়ালী মডেল থানাধীন, আলেখারচর সাকিনস্থ মিয়ামী হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্ট এর বিপরীতে মল্লিকা ফিলিং ষ্টেশনের সামনে চট্টগ্রাম – ঢাকাগামী মহাসড়কের পৌছিয়া তথায় ঢাকাগামী নেভিব্লু রংয়ের প্রাইভেটকার গাড়ী গুলি পর্যবেক্ষন করিতে থাকে। অনুমান ১০ মিনিট পর ঢাকাগামী একটি নেভিব্লু রংয়ের প্রাইভেটকার সন্দেহজনকভাবে আসতে দেখে পুলিশ গাড়ীটি থামানোর জন্য চালককে সংকেত দিলে গাড়ীর চালক সহ গাড়ীতে থাকা অপর একজন গাড়ীটি তথায় থামাইয়া দ্রুত পালানোর চেষ্টা কালে, গাড়ীর চালক আসামী (১) মোঃ ইমরান হোসেন [চালক] (২২), পিতা- কুদ্দুছ তালুকদার, মাতা-নিলুফা পারভীন, সাং-মনোহরপুর, থানা-রাজাপুর, জেলা-ঝালকাঠি, বর্তমানে- চিটাগাং রোড, থানা-সিদ্ধিরগঞ্জ, জেলা-নারায়নগঞ্জ, সহ গাড়ীতে থাকা আসামী (২) (২) মাসুদ মোল্লা @ হযরত (৩১), পিতা- মৃত নুরুল ইসলাম, মাতা- মাহমুদা বেগম, সাং-হরিদাশ পাড়া, থানা-মতলব দক্ষিণ, জেলা-চাঁদপুর, বর্তমানে- মহাখালী বাস ট্রার্মিনাল এর হেলপার, কার্ড নং-০৮, রায়েরবাগ, থানা-কদমতলী, জেলা-ডিএমপিদ্বয়কে আটক করেন।

এসময় ডিবি পুলিশ আসামীদের ব্যবহৃত প্রাইভেটকার তল্লাশী করিয়া গাড়ীর পিছনের ব্যাক ঢালায় ০৩টি চটের বস্তায় রক্ষিত, প্রতি বস্তায় ২০০ বোতল করিয়া মোট ৬০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার পূর্বক জব্দ করেন। এই ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই/ নন্দন চন্দ্র সরকার বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করিলে কোতয়ালী মডেল থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা রুজু করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: