দেলোয়ার হোসেন জাকিরঃ কুমিল্লা ডায়াবেটিক সমিতির ৩০ তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডায়াবেটিক হাসপাতাল মিলনায়তনে সমিতির ৩০ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা ডায়াবেটিক সমিতির প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন ডা. আবদুল কুদ্দুস আখন্দ।

সাধারণ সভার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এমপি বাহার বলেন সকলের সহযোগিতায় কুমিল্লা ডায়াবেটিক হাসপাতাল সমিতি একটি সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান হিসেবে আজ প্রতিষ্ঠিত। তিনি বলেন, এখনো কিছু কিছু সমস্যা রয়েছে। আমরা সকলে মিলে সমস্যাগুলো দূর করব। হাসপাতালের চাকুরীর বয়সসীমা এবং ইসি কমিটির সদস্যদের একটি বয়স সীমা নির্ধারণ করা দরকার। এ বিষয়টি নিয়ে তিনি সাধারণ সদস্যদের মতামত চাইলে সকলে এমপি বাহারের প্রতি প্রস্তাবে সমর্থন দিয়ে একটি যুগপুযোগি বয়সসীমা নির্ধারণ এর সিদ্ধান্ত হয়।

এছাড়াও আর্থিক অনিয়ম, চিকিৎসা সেবায় গাফিলতি এবং কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঠিক ভাবে পরিচালনার বিষয়টি আলোচনায় আসে। বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রতিবেদন তুলে ধরে সাধারণ সম্পাদক জমির উদ্দিন খান জম্পি। পরে গত ৮ই নভেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়া কুমিল্লা ডায়াবেটিক সমিতির নির্বাচনে নির্বাচিত সদস্যদের নাম ঘোষণা করেন। নির্বাচন কমিশনার শাহজাদা গিয়াস উদ্দিন। বিনা প্রতিদন্দিতায় নির্বাচিতদের নাম ঘোষনা করেন তিনি।

নির্বাচনে বিনা প্রতিন্দ্বতিতায় সভাপতি নির্বাচিত হন কুমিল্লা ডায়াবেটিক হাসপাতাল নার্সিং ইন্সটিটিউট এর চেয়ারম্যান বিশিষ্ট নারীনেত্রী ও শিক্ষানুরাগী মিসেস মেহেরুন্নেসা বাহার, সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন ডা. আবদুল কুদ্দুস আখন্দ ও ডা. মো: শহীদুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন মির্জা কোরেশী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আহসান রোমেন ও আশিক অমিতাভ, কোষাদক্ষ্য প্রবাল শেখর মজুমদার মিঠু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক গোলাম মাওলা, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, সদস্য খোরশেদ আলম, নাছির উদ্দিন আহমেদ, এড. জহিরুল ইসলাম সেলিম, পিযুষ কুমার রাহা, একেএম মাসুদুর রহমান ও মঞ্জুর বাবু।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: