নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আগামী ১ নভেম্বর থেকে অনুুষ্টিতব্য জেএসসি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধ ও শৃঙ্খলা রক্ষায় ৩০ মিনিট আগে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে বিশেষ কারণে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকতে বিলম্ব হলে পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মকর্তারা যৌক্তিক কারণ বিবেচনা করে পরীক্ষার্থীদের ঢুকতে দিতে পারবেন। সাম্প্রতিক সময়ের পাবলিক পরীক্ষায় ন্যায় এবারও কুমিল্লা বোর্ডে জেএসসি পরীক্ষাও নকলমুক্ত পরিবেশে নেওয়ার সবাত্মক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও মূল্যায়নে জবাবদিহিতা বাড়ানো হয়েছে।

এ বছর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় কুমিল্লা বোর্ডের পাসের হার হ্রাসের প্রসঙ্গে প্রফেসর আবদুল খালেক বলেন,দেশের অনান্য বোর্ডের তুলনায় কুমিল্লা বোর্ডের পাসের হার কমলেও কুমিল্লা বোর্ডের শিক্ষার্থীদের সাফল্যের হার বেড়েছে। এবছর কুমিল্লা বোর্ডের শিক্ষার্থীরা মেডিকেল,বুয়েট,বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে। নকল মুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা নেওয়ার ফলে কুমিল্লা বোর্ডে শিক্ষার এ গুনগত মান বেড়েছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষক-অভিভাবক ও সচেতন মহল সবাইকে ভূমিকা রাখতে হবে।

গতকাল সোমবার সকালে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ জেএসসি পরীক্ষা-২০১৭ উপলক্ষে আয়োজিত দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর মো.আবদুল খালেক এসব কথা বলেন।
কলেজ অধ্যক্ষ ড.এ কে এম এমদাদুল হক এর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন কলেজের শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ও বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক আবু নাঈম আল মামুন,অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নার্গিস আফরোজ,গনিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মো.ফারুক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, আগামীকাল ১ নভেম্বর শুরু হতে যাচ্ছে জেএসসি পরীক্ষা। কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ থেকে এবছর ৮৬জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের তত্বাবধানে ও কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের অর্থায়নে পরিচালিত কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড মডেল কলেজ গত ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে জাতীয়করণ হয়েছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে কলেজটি শতভাগ পাস সহ বোর্ডের শীর্ষ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় বার বার স্থান পেয়ে আসছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: