দেশজুড়ে করোনা ভাইরাস সংক্রামণ বিস্তার রোধে সতর্কতায় বন্ধ করা হয়েছে গণপরিবহন। আর গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লায় বিপদজনক ভাবে বেড়েছে মোটরবাইক রাইডিং শেয়ার।

অপ্রাপ্ত বয়স্ক থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সী চালকরা যার যে ধরনের মোটরসাইকেল আছে তা নিয়েই বেরিয়ে পড়েছে মহাসড়কে। সামাজিক দূরত্বের কথা চিন্তা করে গণপরিবহন বন্ধ করা হলেও মাত্র আড়াই ফুটের একটি সীটে চালকসহ গাদাগাদি করে বসে চলছে ৩ জন। এতে ভাইরাস সংক্রামিত হওয়ার প্রবল ঝুঁকি রয়েছে।

আর অদক্ষ চালক, রেজিস্ট্রেশহন বিহিন লক্কর-ঝক্কর মোটরবাইকে এক সিটে তিন জনের ভ্রমনে মহাসড়কের কুমিল্লা এলাকায় প্রতিদিনই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা।

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) বিকাল ৪টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনায় পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় চালক সহ ২জন নিহত হয়। এতে আহত হয় আরও এক যাত্রী।

নিহতরা হলেন- কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের বদরপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে মোটরবাইক চালক নাজমূল (২০) ও একই উপজেলার কুটুম্বপুর গ্রামের মোটরবাইক আরোহী আব্দুল জলিল (৬০)।

এসময় আহত হন মোটরবাইক অপর আরোহী ছোলেমান মিয়া (৪০)। তিনি চান্দিনার উপজেলার বাতাঘাসী ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামের আমির হোসেন এর ছেলে। চান্দিনা ফায়ার সার্ভিস একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ চালায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়- আজ কয়েকদিন যাবৎ নাজমূল মহাসড়কে যাত্রী বহন করছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে কুটুম্বপুর থেকে ২ যাত্রী নিয়ে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। মোটরসাইকেলটি মাধাইয়া বাজার এলাকায় অতিক্রম করার পরপর পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যান ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে আব্দুল জলিল নামে এক যাত্রী নিহত হয়। আহতাবস্থায় নাজমূল ও ছোলেমানকে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুমেকে পাঠালে পথিমধ্যে মৃত্যু ঘটে মোটরবাইক চালক নাজমূলের।

আহত যাত্রী ছোলেমান জানান- ‘আমি কুটুম্বপুর থেকে কুমিল্লা যাওয়ার জন্য দেড়শ টাকা ভাড়া ঠিক করে মোটরসাইকেলে উঠি। আমি মাঝে ছিলাম আর যে ব্যক্তিটি মারা গেছেন তিনি পিছনে ছিলেন’।

এ ব্যাপারে হাইওয়ে পুলিশ ইলিয়টগঞ্জ ফাঁড়ির ইন-চার্জ (ইন্সপেক্টর) গোলাম মোস্তফা মৃত্যুটি বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুর্ঘটনার পরপর হাইওয়ে পুলিশ ও চান্দিনা ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ চালায়। ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি পালিয়ে যাওয়ায় আটক করা সম্ভব হয়নি। আর মহাসড়কের অবৈধ বাইক রাইডিং শেয়ারের বিষয়টি আমদের নজরে এসেছে। আমাদের টহল টিম নিয়মিত অভিযান অব্যাহত রেখেছে। আমরা আরও কঠোর ভাবে বিষয়টি দেখবো।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: