নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর বলেছেন ,বর্তমান কৃষি বান্ধব সরকার কৃষিতে প্রযুক্তির ব্যবহার ঘটিয়ে খাদ্য ঘাটতির দেশ থেকে বাংলাদেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ দেশে পরিনত করেছে। আমরা এখন চিকন চাল বিদেশে রপ্তানী করছি। কৃষিতে এই বিপ্লব ধরে রাখতে আধুনিক কৃষির প্রতি কৃষকদের আগ্রহ বাড়াতে হবে। কৃষিতে প্রযুক্তি ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। কৃষি জমিতে অপরিকল্পিত বাড়ি-ঘর নির্মাণ করে ফসলী জমি নষ্ট করা যাবে না। আর ফসলী জমি থেকে ইট ভাটার জন্য টপ-সয়েল বিক্রি করলে জমির উৎপাদন ক্ষমতা কমানো যাবে না। এসব বিষয়ে কৃষক ও কৃষি কর্মকর্তাদের সচেষ্ট থাকতে হবে।

গতকাল মঙ্গলবার আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষীদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর এসব কথা বলেন।

আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.মোঃ আমিনুল ইসলাম টুটুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক দিলীপ কুমার অধিকারী,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.শামসুজ্জামান,উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল,মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান এড.হোসনেয়ারা বেগম বকুল, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শাহনাজ রহমান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বাবু চৌধুরী। অনান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আমড়াতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন উপজেলা কৃষি সস্প্রসারণ কর্মকর্তা মমতাজ বেগম। এসময় কালিরবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো.সেকান্দর আলী, দূর্গাপুর (উত্তর) ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, দূর্গাপুর(দক্ষিন) ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো.আমিনুল হক,জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মামুন,কেটিসিসিএ লি.এর পরিচালক জোনায়েদ শিকদার তপু সহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.মোঃ আমিনুল ইসলাম টুটুল বলেন, বিএনপি আমলে কৃষকরা টাকা দিয়েও সার দিতে পায়নি। কৃষকরা সারের দাবিতে আন্দোলন করায় তাদের গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। আর কৃষি বান্ধব জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার বিনা মূল্যে সার ও বীজ দিচ্ছে। কোন সরকারের আমলেই আউশে কোনো সময় প্রণোদনা ছিল না। আউশ চাষে কৃষকদের উৎসাহিতকরণ, ফলন বৃদ্ধি, পতিত জমি আবাদের আওতায় আনতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরে ২০০৮-০৯ অর্থবছর থেকে প্রণোদনা দেওয়া শুরু হয়। উন্নয়নে এ ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় আনতে হবে।

গতকাল ওই অনুষ্ঠানে সরকার ঘোষিত কৃষি প্রনোদনার আওতায় আদর্শ সদর উপজেলার ৬ ইউনিয়নের ১৭৫ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষীদের মাঝে উফশী আউশ ও নেরিকা আউশ বীজ,সার ও সেচ ও আগাছা দমনের জন্য অর্থ-সহায়তা প্রদান করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: