ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজে নতুন ভবনে আবাসন পেয়েছেন ১৩২ ছাত্রী। মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) পাঁচতলা বিশিষ্ট অত্যাধুনিক নতুন ভবনের উদ্বোধন করেন সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আ.ক.ম বাহাউদ্দীন বাহার। ফলক উন্মোচন শেষে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মুখে নিজ হাতে মিষ্টি তুলে দেন প্রধান অতিথি।

ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে এই সংসদ সদস্য বলেন, নওয়াব ফয়জুন্নেসা ছিলেন দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম নারী নেত্রী। তিনি নারীশিক্ষার পথিকৃৎ। তিনি অনেকটা নিজের অদম্য ইচ্ছার কারণে শিক্ষিত হয়েছেন। তোমরা নওয়াব ফয়জুন্নেসার মতো আলো ছড়াও। কুমিল্লার মেয়েরা পিছিয়ে থাকতে পারে না। এ ভিক্টোরিয়া কলেজের জন্য যা যা করা দরকার সব করে দেবো। এ কলেজে ১০ তলা বিশিষ্ট আধুনিক ভবন হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. আবু জাফর খান এর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মৃণাল কান্তি গোস্বামী, শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক ইউনুস মিয়া, নবাব ফয়জুন্নেসা হলের তত্বাবধায়ক মাসুদা বেগম তোফা, বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ শাহজাহান, হলের সহ-তত্বাবধায়ক নিশাদ পারভীন, ছাত্রলীগের ভিক্টোরিয়া কলেজের আহ্বায়ক কাজী সায়েমসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

পাঁচতলা বিশিষ্ট নতুন ভবনটি ২০১৬ সালের ২৪ জুন ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। নিমার্ণে কাজে তদারকি করে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর।

প্রসঙ্গত, ১৮৯৯ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ। ১৯৬২ সালে ডিগ্রি শাখা ধর্মপুর স্থানান্তরের পর ১৯৯০ সালে ছাত্রীদের জন্য নবাব ফয়জুন্নেসা হল চালু করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: