কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে মহসিন ওরফে ইউছুফ (৩৮) নামের এক পিকাপ চালকের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার (৪ জুলাই) সকালে উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউপির মন্তলী ব্রিজ সংলগ্ন শ্রীরামপুর খালের পাড় থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ইউছুফ শ্রীরামপুর গ্রামের পশ্চিম পাড়ায় মৃত. মন্তু মিয়ার ছেলে। তিনি বাঙ্গড্ডা ইউপির আঙ্গুলখোড় গ্রামের গত আট বছর ধরে স্ত্রী ও তিন ছেলে এক মেয়ে নিয়ে বসবাস করে আসছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টার সময় শ্রীরামপুর গ্রামের তার পুরাতন বাড়ির পাশের দোকানের সামনে থেকে মালিপাড়া গ্রামের হানিফের প্রাইভেট কার যোগে শান্তির বাজারে গিয়ে নামে। বাজারের একটি সিসি টিভির ফুটেজে রাত ১০ টায় তাকে দেখা গেছে। সকাল বেলায় শ্রীরামপুর এলাকায় তার লাশ দেখতে পায় লোকজন।

এ বিষয়ে একটি সূত্র জানিয়েছে নিহত ইউছুফের ভাইদের সাথে জায়গা-জমিন নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। ও স্হানীয় একটি পুকুর নিয়েও দ্বন্দ্ব চলে আসছে।

এ বিষয়ে নিহতের স্ত্রী সামছুর নাহার বলেন, গত রাতে তার স্বামী ইউছুফকে কে বা কারা হত্যা করে খালের পাড়ে তার লাশ পেলে রেখে যায়। এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে সঠিক বিচারের দাবি জানানা তিনি।

নাঙ্গলকোট থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। রহস্যজনক মৃত্যু মনে হচ্ছে। এ নিয়ে পুলিশ কাজ করছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে বিস্তারিত জানা যাবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: