শনিবার বেলা ১১টায় কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা সদরে মেহেদী হাসান নামের এক ব্যবসায়ীর টিন সেটের ঘরে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের মাধ্যমে আগুন লেগে মুহুর্তের মধ্যে আগুনের শিখা চার দিকে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে বুড়িচং ফায়ার সার্ভিস এর একটি টিম স্থানীয় লোকজন এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে নগদ টাকা, স্বর্নলংকার মালামাল সহ প্রায় দশ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে।

প্রত্যক্ষ দর্শী একই মকবুল হোসেন মুকুল সহ অনেকে জানান শনিবার বেলা ১১ টায় কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা সদরের পূর্ব পাড়া্র মৃত আলমগীর হোসেনের ছেলে ব্যবসায়ী মেহেদী হাসান ( ৩০) এর টিন সেটের বসত ঘরে প্রথমে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের মাধ্যমে অগ্নিকান্ডের সূত্র পাত্র ঘটে। মুহুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা চার দিকে ছড়িয়ে পড়ে। আশেপাশের লোকজন আগুনের উপস্থিতি টের পেয়ে বুড়িচং ফায়ার সার্ভিস কে খবর দেয়। বুড়িচং ফায়ার সার্ভিস এর স্টেশন অফিসার সোহেল রানার নেতৃত্বে একটি টিম ও স্থানীয় লোকজন এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনে। এসময় আগুনের তান্ডবে ঘরে থাকা নগদ ৩ লক্ষ টাকা, সাড়ে ৭ ভরি স্বর্নলংকার, ইলেক্ট্রনিক ও অন্যান্য মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে প্রায় দশ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে।

খবর পেয়ে বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ সাবিনা ইয়াসমিন ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ মোস্তফা মাঈদুল মোর্শেদ মুরাদ ঘটনার খোজ খবর নেন। এছাড়া ক্ষতি সাধিত পরিবারকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ সাবিনা ইয়াসমিন চাল, ডাল তেল লবন নগদ টাকা এবং কম্বল প্রদান করেন। এসমস্ত খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন প্রতিনিধি হিসেবে প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ার এম জাহাঙ্গীর আলম ভূইয়া, ফখরুল ইসলাম।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: