বুড়িচং সংবাদদাতাঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ভারেল্লা দক্ষিন ইউনিয়নের দেবপুর এলাকায় নিজের বশত ঘর থেকে মোঃ সবুজ (২১) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর এস আই শাহাদাৎ এ লাশ উদ্ধার করেন।

নিহত যুবকের পিতা মন্তাজ মিয়ার বরাত দিয়ে পুলিশ জানান, তাঁর ছেলে বেশ কিছুদিন যাবত নেশগ্রস্থ ছিল, গত কয়েকদিন ধরে তাঁকে একটি অটোবাইক কিনে দেয়ার জন্য চাপ দিয়ে আসছিল। মন্তাজ মিয়ার নিকট টাকা না থাকায় সে তাঁর ছেলেকে এক সাপ্তাহের মধ্যে কিনে দিবে বলে আস্বাশ দেন। গত সোমবার দুপুরে সবুজ তাঁর স্ত্রীকে গালমন্দ করলে সে তাঁর বাবার বাড়ীতে চলে যায়। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় সবুজ ঘরের আসবাপপত্র ভাংচুর আরাম্ভ করে। এসময় সুবজের পিতা ও মাতা বাঁধা প্রদান করলে সবুজ তাদের মারার জন্য আক্রমন করে। এতে তাঁরা ভয়ে পাশের বাড়ীতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। দেড় ঘন্টারপর তাঁরা বাড়ীতে ফিরে আসে সুবজের ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পায়। পরে ঘরের জানালা খুলে দেখে সবুজ গলায় ফাঁস লাগিয়ে তীরের সাথে ঝুলে আছে। এসময় তাদের আত্মচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে। পরে দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীতে খবর দিলে এস আই শাহাদাত সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে।

এস আই শাহাদাৎ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে তীরের সাথে লাইলনের রশী দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় নিহতের লাশ দেখতে পায়। পরে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় বুড়িচং থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: